আমির খানের ছবি থেকে বাদ ঐশ্বর্য, মুহূর্তে ক্ষমা চাইতে হল কাকে

223
aiswariya

বলিউডের অন্যতম সেরা অভিনেত্রীদের তালিকায় এখনও ঐশ্বর্য বিরাজমান। তাঁর সৌন্দর্য এবং অভিনয় দক্ষতা বরাবরই দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছে। দক্ষ অভিনেত্রীর পাশাপাশি ঐশ্বর্য একজন সুদৃঢ় ব্যক্তিত্বেরও অধিকারী। বরাবরই সাংবাদিকদের করা কঠিন প্রশ্নকে ফ্রন্টফুটে খেলেছেন তিনি। শোনা যায় ২০০৫ সালে মুক্তি পাওয়া আমির খানের ‘মঙ্গল পাণ্ডে’ সিনেমাতে ঐশ্বর্যকে সরিয়ে দেন ওই ছবির প্রযোজক। এই বিষয়ে ২০০৪ সালে এক সাংবাদিক তাঁকে প্রশ্ন করলে ঐশ্বর্য সহজভাবেই, কড়া গলায় জবাব দিয়েছিলেন।

সেই সময় ওই সাংবাদিক ঐশ্বর্যকে প্রশ্ন করেন, ‘শোনা যাচ্ছে মঙ্গল পাণ্ডে সিনেমায় আপনাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে’। সাংবাদিকের এই প্রশ্নে একটুও বিচলিত না হয়ে ঐশ্বর্য বলে উঠেন, এক্ষেত্রে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে এই কথাটি মোটেও প্রযোজ্য নয়। ঘটনাটা সম্পূর্ণ আলাদা। ওই সিনেমার প্রযোজক ঐশ্বর্য-এর কাছে ক্ষমা চেয়েছিলেন, কারণ ওই প্রযোজক দাবি করেছিলেন ঐশ্বর্যকে সিনেমা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। আসলে বিষয়টা একেবারেই ভিন্ন।

ঐশ্বর্যের কথায় তাঁকে ওই সিনেমার জন্য অফার দেওয়া হয়। কথাবাত্রাও অনেকদূর এগিয়ে ছিল। তবে কোনও কারণ বশত শেষপর্যন্ত নির্মাতা সংস্থার সঙ্গে ঐশ্বর্যের এজেন্ট টিমের মতবিরোধ ঘটে। তখনই ঐশ্বর্য নিজেই ওই প্রোজেক্ট থেকে হাত গুটিয়ে নেন। এরপর ওই ছবির জন্য আমিশা প্যাটেলকে প্রস্তাব দেওয়া হয়। এক প্রথম সারীর সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আমিশা বলেন, ‘এতবড় ব্যানারের ছবিতে কাজ করার সুযোগ পেয়ে তিনি খুবই উচ্ছ্বসিত’। এর পাশাপাশি আমিশা জোর গলায় দাবিও করেছিলেন, তিনি এই সিনেমাতে সুযোগ পেয়েছেন সম্পূর্ণ তাঁর অভিনয় দক্ষতায়। কোনও চালাকির আশ্রয় নিতে হয়নি তাঁকে’।