Kejriwal: ‘ভালো আছি,’ চণ্ডীগড়ের ভোটে হার নিয়ে ‘স্পিকটি নট’

চণ্ডীগড়ের পুরভোটে বিপুল জয় পেলেও পুরসভার মেয়র নির্বাচনে হেরে গিয়েছে কেজরিওয়ালের (Kejriwal) আম আদমি পার্টি। বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে এই ঘটনাই আপ যে যথেষ্ট অস্বস্তিতে…

চণ্ডীগড়ের পুরভোটে বিপুল জয় পেলেও পুরসভার মেয়র নির্বাচনে হেরে গিয়েছে কেজরিওয়ালের (Kejriwal) আম আদমি পার্টি। বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে এই ঘটনাই আপ যে যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে তা বলাই বাহুল্য।

আপকে হারিয়ে গেরুয়া ধ্বজের জয়জয়কার হয়েছে চণ্ডীগড় পুরসভায়। আপকে মাত্র ১ ভোটে হারিয়ে বাজিমাত করেন বিজেপির সরবজিৎ কৌর। তিনি চণ্ডীগড় পুরনিগমে মেয়র নির্বাচিত হন। জানা গিয়েছে, সরবজিৎ কৌর আম আদমি পার্টির অঞ্জু কাত্যালকে মাত্র এক ভোটে পরাজিত করেছেন । সেই কথায় আছে না, একটা ভুল গোটা অঙ্ককে বদলে দিতে পারে, এক্ষেত্রেও মাত্র ১টি ভোটের ব্যবধানে গেরুয়া শিবিরের কাছে পরাজিত হয়েছে আপ।

এর আগে পুরভোটে জয় নিয়ে উচ্ছাস দেখালেও মেয়র নির্বাচনে দলের হার নিয়ে একেবারে মুখে কুলুপ এঁটেছেন আপ প্রধান কেজরিওয়াল। ‘আমি আবার ফিরে এসেছি’। করোনা থেকে সুস্থ হয়ে এমনটাই সকলকে বার্তা দেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টি প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি এক ভিডিও বার্তায় জানান, ‘কোভিডের কারণে গত ২ দিন ধরে জ্বর ছিল। ৬-৭ দিন হোম আইসোলেশনে থাকার পর আমি এখন ঠিক আছে এবং আপনাদের সেবা করতে হাজির হয়েছি আবার।’

সেইসঙ্গে দিল্লিতে লকডাউন ইস্যুতে তিনি বলেন, এখনই রাজ্যে লকডাউনের প্রয়োজন নেই। সকলে দয়া করে মাস্ক পড়ুন। দিল্লিতে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে এক ধাক্কায় ২২ হাজার জন করোনাই আক্রান্ত হয়েছেন। যা চিন্তার বিষয়।

করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পরেছে দেশে। হু হু করে বাড়ছে সংক্রমিতের সংখ্যা। রাজনৈতিক জগতেও থাবা বসিয়েছে এই মরণ সংক্রমণ। চলতি মাসে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর সকলকে নিজেই জানান দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। তারপর থেকেই তিনি হোম আইসোলেশনে ছিলেন। গতবছর তাঁর স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হলেও সেইসময় তিনি রেহাই পান, কিন্তু এবারে আর শেষ রক্ষা হয়নি।