Tripura: আসন্ন পুর নির্বাচনে ‘প্রবল সন্ত্রাসে’ অভিযুক্ত BJP, বিনা ভোটেই বিপুল জয়

পশ্চিমবঙ্গে TMC বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ বিজেপির

433
cpim

News Desk: পশ্চিমবঙ্গে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে উপনির্বাচনে লাগাতার রিগিং ও ভোট লুঠ, সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলছে বিরোধী দল বিজেপি। তারাই আবার ত্রিপুরায় শাসক দল হয়ে ভোট সন্ত্রাসে অভিযুক্ত। আসন্ন পুর ও স্থানীয় ভোটে শতাধিক আসনে কোনও প্রার্থী নেই প্রধান বিরোধী দল সিপিআইএমের। অভিযোগ, সন্ত্রাস ছড়িয়ে মনোনয়ন জমা করতে দেয়নি বিজেপি।

পশ্চিমবঙ্গে গ্রামপঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন দাখিল ঘিরে ব্যাপক সন্ত্রাসে অভিযুক্ত হয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তাদের বিরুদ্ধে সরব বিজেপি ত্রিপুরায় ভয়াবহ সন্ত্রাস ছড়িয়েছে এমন অভিযোগে বারে বারে দেশ উত্তপ্ত হয়েছিল। প্রায় ৯৫ শতাংশ গ্রামভিত্তিক আসনে ভোট লুঠে অভিযুক্ত বিজেপি।

আসন্ন পুর নির্বাচনে ত্রিপুরায় নির্বাচনী সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছে সিপিআইএম। অভিযোগ, উদয়পুর, বিশালগড়, কমলপুর, শান্তিরবাজার ও মোহনপুর পৌর পরিষদে কোনও ভোটই যাতে না হয় তার জন্য বাম প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দিতে দেওয়া হয়নি। একইভাবে জিরানিয়া ও রানিরবাজার নগর পঞ্চায়েতেও কোনও ভোট হবে না।

ত্রিপুরা নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা দিয়েছে, আগরতলা পুরনিগম, ১৩টি পৌর পরিষদ ও ৬টি নগর পঞ্চায়েতের মোট ৩৩৪টি আসনে ভোট হবে। পুর নিগম বাদ দিলে, বিরোধী বাম শিবির, কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেসের কোনওপক্ষই সম্পূর্ণ আসনে প্রার্থী দিতে পারেনি। ৭টি নগর সংস্থায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতা জিতে যাবে শাসক বিজেপি।

বিরোধী দল সিপিআইএমের অভিযোগ, ২০১৮ সালে রাজ্যে বিজেপি জোট সরকারে আসার পর যে সন্ত্রাস শুরু করেছে তার সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে শাসক দল তৃ়ণমূল কংগ্রেস ও তাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নীতির পুরো মিল। তবে সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি।