TMC in Goa: এবার গোয়াতেও দিদির দূত

347
TMC in Goa

নিউজ ডেস্ক : বাংলার ছকেই এবার গোয়ায় জনসংযোগে নামতে চলেছে তৃণমূল (TMC)। জানা গেছে, তৃণমূল নেতারা পশ্চিম ভারতের এই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় প্রচারে যাবেন। থাকবেন তৃণমূল স্তরের নেতা-কর্মীদের এলাকায়। মত্‍স্যজীবী, কৃষক, সাফাই কর্মী সকলের কাছেই পৌঁছে যেতে চাইছেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। তাই বাংলার শাসক দলের (TMC in Goa) এই বিশেষ প্রচার কৌশল।

তৃণমূলের এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন, ‘বিজেপি শাসিত রাজ্যে সর্বত্র স্বৈরতন্ত্র চালাচ্ছে সরকার। অন্য কোনও দলকে মাঠে নামতে দেওয়া হচ্ছে না। আমাদের কাছে মানুষকে পৌঁছতে দিচ্ছে না। আমরা মানুষের কাছে পৌঁছব। বিজেপিকে স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমরা তৃণমূল কংগ্রেস। কাউকে ভয় পাই না।’

গোয়ায় প্রচারের জন্য একাধিক দল গঠন করা হয়েছে। রাজ্যজুড়ে মমতার বার্তা ছড়িয়ে দেবেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা। পাশাপাশি প্রশাসনের বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ জানানো হবে। গোয়ার এই কর্মসূচিতেও বিজেপি বাধা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করছে নেতৃত্ব। ‘গোয়েঞ্চি নভি সকাল’ ক্যাম্পেনের সূচনা করে তৃণমূল আগেই জানিয়েছে, ‘আমরা বিজেপির ঘৃণা ও হিংসার রাজনীতিকে ভয় পাই না। গোয়ায় প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত করতে আমরা দায়বদ্ধ।’

গোয়ায় কর্মসূচির জন্য ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি প্রচার-গাড়ি রাস্তায় নামিয়েছে ঘাসফুল শিবির। নীল-সাদা গাড়িগুলির গায়ে লেখা ‘গোয়েঞ্চি নভি সকাল’ (Goenchi Navi Sakal)। এই গাড়িতে চড়েই গোয়ার প্রতিটি প্রান্তে পৌঁছাতে চায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটে তৃণমূলের খারাপ ফলের পর মানুষের সঙ্গে জনসংযোগে প্রশান্ত কিশোরের টোটকায় শুরু হয়েছিল ‘দিদিকে বলো’ (Didike Bolo) কর্মসূচি। নির্দিষ্ট নম্বরে ফোন করে অভাব-অভিযোগ জানানোর পাশাপাশি তৃণমূল নেতারা জেলায় জেলায় ঘুরেছেন। সেই কৌশলেই এবার গোয়ায় নামছে মমতার দল (TMC in Goa)।

আগামী সপ্তাহেই মমতা-অভিষেক গোয়া যেতে পারেন। বিধানসভা ভোটের আগে একাধিকবার গোয়া ছুটে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এরমধ্যে বিজেপি শাসিত এই রাজ্যে পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে নতুন করে কোমর বাঁধছে জোড়াফুল শিবির। তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা ঠিক করেছেন, ভোট ঘোষণা হওয়া পর্যন্ত গোয়া জুড়ে দলের একটানা কর্মসূচি চলবে।