""
Friday, October 7, 2022
Homeদেশের দশদিকKirti Azad join TMC: মমতার নেতৃত্বে উন্নয়ন হবে নিশ্চিত কীর্তি

Latest Posts

Kirti Azad join TMC: মমতার নেতৃত্বে উন্নয়ন হবে নিশ্চিত কীর্তি

- Advertisement -

News Desk, New Delhi: প্রত্যাশামতোই মঙ্গলবার বিকেলে তৃণমূল কংগ্রেসে (TMC) যোগ দিলেন দেশের প্রাক্তন ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ কীর্তি আজাদ। একইসঙ্গে এদিন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন জেডিইউয়ের প্রাক্তন সাংসদ পবন ভার্মা।

সোমবার বিকেলেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি এসেছেন। তাঁর এবারের রাজধানী সফরে বেশ কিছু চমক থাকতে পারে এমন ইঙ্গিত আগেই মিলেছিল। মঙ্গলবার সকালে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন বিশিষ্ট পরিচালক ও সুরকার জাভেদ আখতার এবং প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর উপদেষ্টা সুধীন্দ্র কুলকার্নি। চলতি রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে তাঁদের এই সাক্ষাৎকারটি যে নিছকই সৌজন্যমূলক ছিল না তা বলাই বাহুল্য।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূল কংগ্রেসের যোগ দেওয়ার পর কংগ্রেস ছেড়ে আসা নেতা কীর্তি আজাদ বলেন, দল তাঁকে যে দায়িত্ব দেবে তিনি তা পালন করার চেষ্টা করবেন। তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্বেই গোটা দেশ উন্নয়নের পথে হাঁটবে। একদিন গোটা দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে চলার দিশা দেখাবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

paban

অন্যদিকে পবন ভার্মা একজন দক্ষ কূটনীতিক হিসেবে পরিচিত। এক সময় তিনি ভুটানে ভারতের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। পরবর্তী ক্ষেত্রে তিনি বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের উপদেষ্টাও হয়েছিলেন। তখন থেকেই পবনের সঙ্গে জেডিইউয়ের ঘনিষ্ঠতা। জেডিইউয়ের টিকিটে রাজ্যসভায় নির্বাচিত হয়েছিলেন এই দক্ষ কূটনীতিবিদ। একসময় জেডিইউ-এর সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক এমনকী, দলের মুখপাত্রের ভূমিকাও পালন করেছেন পবন।

মমতা এদিন নিজে পবনকে দলে স্বাগত জানান। গলায় পরিয়ে দেন তৃণমূলের উত্তরীয়। তৃণমূলে যোগদানের পর প্রাক্তন কূটনীতিবিদ বলেন, তিনি নিশ্চিত ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লিতেই থাকবেন। মমতার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের পথে হাঁটবে।

এদিন মমতার সঙ্গে দেখা করেন বিখ্যাত সুরকার ও পরিচালক জাভেদ আখতার। জাভেদ সরাসরি রাজনীতি না করলেও তিনি বিজেপি বিরোধী বলেই পরিচিত। এরইমধ্যে এদিন মমতার সঙ্গে দেখা করেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী ও লালকৃষ্ণ আদবানীর অতিঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা সুধীন্দ্র কুলকার্নি। কুলকার্নির মত একজন দক্ষ ও সুপণ্ডিত ব্যক্তির সঙ্গে মমতার এই সাক্ষাৎকার দিল্লির রাজনীতিতে যথেষ্ট আলোড়ন তৈরি করেছে।

তবে, বিজেপি সাংসদ বরুণ গান্ধী তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন বলে যে জল্পনা চলছিল এ দিন তার কোনও প্রমাণ মেলেনি। বরুণকে এদিন মমতা বা তৃণমূল নেতাদের আশপাশে কোথাও দেখা যায়নি। তবে আগামী দিনে বিজেপি এই সাংসদ কী পদক্ষেপ করতে চলেছেন তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে একটা কৌতুহল রয়েছে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss