8.4 C
London
Sunday, February 5, 2023
Homeদেশের দশদিকSubramanian Swamy: নরেন্দ্র মোদী অর্থনীতির কিছুই বোঝেন না- বিস্ফোরক স্বামী

Latest Posts

Subramanian Swamy: নরেন্দ্র মোদী অর্থনীতির কিছুই বোঝেন না- বিস্ফোরক স্বামী

- Advertisement -

Subramanian Swamy attack on Narendra Modi
নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: মাত্র ২৪ ঘন্টা আগে দেখা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে। মমতার সঙ্গে দেখা করার পর বলেছিলেন আমি তো প্রথম থেকেই তৃণমূলের সঙ্গে আছি।

বৃহস্পতিবার (Thursday) কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে (Modi Government) কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন। বললেন, দেশের অর্থনীতি(economy), নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান সবক্ষেত্রেই ব্যর্থ মোদী সরকার। মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার এই অভিযোগ তুললেন বিক্ষুব্ধ বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী (Subramanian Swamy)।

- Advertisement -

বুধবার বিকেলে মমতার সঙ্গে দেখা করার পর দিল্লির রাজনীতিতে জল্পনা চলছে সুব্রহ্মণ্যম স্বামী কি এবার তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন! তার উত্তরে স্বামী বলেছেন, তিনি তো প্রথম থেকেই তৃণমূলের পাশে আছেন। বৃহস্পতিবার আরও একধাপ এগিয়ে মোদী সরকারকে তুলোধোনা করলেন তিনি।

একের পর এক বিষয় নিয়ে মোদী সরকারকে আজ কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন স্বামী। স্বামী এদিন সম্পূর্ণ দলের লাইনের বাইরে গিয়ে মোদী সরকারকে আক্রমণ করেছেন। তিনি বলেছেন, বর্তমান সরকারের অধীনে কাশ্মীরের মানুষ সুখে-শান্তিতে নেই। তবে শুধু কাশ্মীরের মানুষ নয়, গোটা দেশের মানুষই মোদী সরকারের কাজ-কর্মে যথেষ্টই অখুশি। কারণ এই সরকার দেশকে নিরাপত্তা দিতে পারে না। অর্থনীতিকে ধরে রাখতে পারে না। নরেন্দ্র মোদী তো অর্থনীতির কিছুই বোঝেন না। উনি শুধু চিনকেই ভয় করে চলেন। কিন্তু কেন আমরা ওদের ভয় পাব? ওদের যদি পরমাণু অস্ত্র থাকে একই জিনিস তো আমাদেরও আছে। তাহলে চিনকে এত ভয় পাওয়ার কারণ কি?

স্বামী আরও বলেন, মোদী সরকার সব দিক দিয়েই ব্যর্থ। এই সরকার মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারে না। এমনকী, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেও মোদীসরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ। এই সরকার শুধু পেগাসাস স্পাইওয়্যার দিয়ে বিরোধীদের ওপর নজরদারি চালাতে পারে। বিরোধীদের গতিবিধি ট্র্যাক করতে পারে। এছাড়া এই সরকারের আর কোনও কাজ নেই।

এর আগেই সুব্রহ্মণ্যম স্বামী টুইট করে মমতাকে মোরারজি দেশাই, রাজীব গান্ধী, জয়প্রকাশ নারায়ণ, পিভি নরসিমা রাওয়ের মত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীদের সঙ্গে একই আসনে বসান। স্বামী বলেন, আমি যতজন রাজনীতিবিদদের সঙ্গে কাজ করেছি তাঁদের মধ্যে জয়প্রকাশ নারায়ণ, মোরারজি দেশাই, নরসিমা রাও, রাজীব গান্ধীর সমকক্ষ হলেন মমতা। উনি যা ভাল বোঝেন সেটাই বলেন। যা করেন সেটা সকলকে জানান। দেশের রাজনীতিতে এটা এক বিরল গুণ।

সূত্র খবর, মোদী সরকারের কাছে যথেষ্ট কোণঠাসা স্বামী। সে কারণেই তিনি প্রথম থেকেই মোদী সরকার তথা প্রধানমন্ত্রী মোদীর কট্টর সমালোচক। তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ালেও এখনই অবশ্য তিনি তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন না।

বরং আগামী দিনে এভাবেই তিনি মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বিরোধী শিবিরের সুবিধা করে যাবেন। বেশ কিছুদিন ধরেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে স্বামীর সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। যে কারণে কিছুদিন আগেই বিজেপির কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে বাদ পড়তে হয়েছে স্বামীকে। তবে রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছে স্বামীও এবার তৃণমূলের পথেই হাঁটতে চলেছেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss