""
Friday, October 7, 2022
Homeদেশের দশদিকধর্ষণ, খুনের মতো অপরাধ করলেও কম বয়সীদের মৃত্যুদণ্ড নয়, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Latest Posts

ধর্ষণ, খুনের মতো অপরাধ করলেও কম বয়সীদের মৃত্যুদণ্ড নয়, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

একটি মামলার প্রেক্ষিতে নিজেদের এই মতামত ব্যক্ত করল সুপ্রিম কোর্ট

- Advertisement -

News Desk, New Delhi: খুন ধর্ষণের মতো মারাত্মক অপরাধ করলেও কম বয়সিদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া যাবে না। অল্পবয়সীদের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ শাস্তি হবে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। অপরাধ যতই গুরুতর হোক না কেন, শাস্তি দেওয়ার সময় অপরাধীদের বয়সের কথাটা মাথায় রাখতে হবে। একটি মামলার প্রেক্ষিতে নিজেদের এই মতামত ব্যক্ত করল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)।

কর্নাটকের বাসিন্দা ইরাপ্পা সিদাপ্পা (Irapp Sidappa) মরগাুন্নাভার নামে এক ব্যক্তি পাঁচ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণের পর নির্মমভাবে খুন করেছিল। ইরাপ্পা যখন ওই অপরাধ করে তখন তার বয়স ছিল ২৩। দোষী সাব্যস্ত ইরাপ্পাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল কর্নাটক হাইকোর্ট। হাইকোর্টের ওই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন ইরাপ্পা। সেই আবেদনের শুনানিতে নিজেদের এই মতামত প্রকাশ করেছে শীর্ষ আদালত।

- Advertisement -

বিচারপতি সঞ্জীব খান্না (Sanjib Khanna), বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাও (L Nageswar Rao) এবং বিচারপতি আর গাভাইয়ের (R Gavai) বেঞ্চ এই মামলার শুনানিতে বলেন, অপরাধীদের শাস্তি বিধানের আগে তাদের বয়সের কথাটা মাথায় রাখা দরকার। কর্নাটকের (Karnatak) বাসিন্দা ইরাপ্পা যা করেছে তা অত্যন্ত জঘন্য অপরাধ। কিন্তু এক্ষেত্রে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডই তার উপযুক্ত শাস্তি। কারণ এতে কৃতকর্মের জন্য ওই যুবক অনুতপ্ত হওয়ার সুযোগ পাবে। সুযোগ পাবে নিজেকে শুধরে নেওয়ার। আমাদের মনে রাখতে হবে, রায়দানের সময় সব কিছুই মাথায় রাখা দরকার। আমরা জানতে পেরেছি অত্যন্ত গরীব ঘরের সন্তান ইরাপ্পা। তাই তার মধ্যে শিক্ষাদীক্ষার অভাব ছিল।

তিন বিচারপতির বেঞ্চ আরও বলে, গত ৪০ বছরে সুপ্রিম কোর্ট এ ধরনের ৬৭ টি মামলার রায় দিয়েছে। এই মামলাগুলির রায় ঘোষণা করতে গিয়ে অপরাধীর বয়সকেও মাথায় রাখা হয়েছিল। অন্তত পরিসংখ্যান থেকে সেটাই বলা যেতে পারে। কারণ এই ৬৭টি মামলায় দোষী সাব্যস্তরা অত্যন্ত গুরুতর অপরাধ করেছিল। সেক্ষেত্রে এই ৬৭ টি মামলাতেই অপরাধীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া উচিত ছিল, কিন্তু তা হয়নি। এই ৬৭ টি মামলার মধ্যে ৫১টিতে অপরাধীদের বয়স ছিল ১২ বছরের কম। ৫১ টি মামলার মধ্যে মাত্র ১২ টি মামলায় মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। পরবর্তী ক্ষেত্রে এই ১২ টির মধ্যে তিনটি মামলার রায় বদল হয়েছিল। মৃত্যুদণ্ডের পরিবর্তে তাদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। তাই অপরাধীদের সাজা ঘোষণার ক্ষেত্রে অবশ্যই তাদের বয়সের কথাটা মাথায় রাখতে হবে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss