10.4 C
London
Monday, November 28, 2022
Homeনগর দর্পণবিজেপির বাংলা ভাগ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বাংলাপক্ষের সমাবেশ

Latest Posts

বিজেপির বাংলা ভাগ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বাংলাপক্ষের সমাবেশ

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক: বাংলা ভাগের চক্রান্তের বিরুদ্ধে এবার পথে নামল বাংলাপক্ষ৷ রবিবার বাংলাপক্ষের হুগলি জেলা কমিটির উদ্যোগে ডানকুনিতে একটি প্রতিবাদ সভা করা হয়৷ এদিন ডানকুনির ১৩ নম্বর ওয়ার্ড মিলন সংঘ ক্লাবের সামনে এই সমাবেশে বাংলা ভাগের বিরুদ্ধে বাঙালিকে একজোট হওয়ার আহ্বান করা হয়৷ পাশাপাশি ভূমিপুত্র সংরক্ষণ তথা যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকারের সমস্ত পরীক্ষা বাংলা ভাষায় দেওয়ার সুযোগের দাবিও তোলা হয় এই পথসভায়৷ এই সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলা পক্ষর সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডক্টর গর্গ চট্টোপাধ্যায় এবং সংগঠনের অন্যতম নেতা কৌশিক মাইতি।

বাংলা ভাগের চক্রান্ত হিন্দি সাম্রাজ্যবাদী বিজেপি দীর্ঘদিন করছে৷ এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করে বাংলাকে উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ দুই রাজ্যে ভাগ করে গোটা বাঙালি জাতিকে দুর্বল করার প্রক্রিয়া এখনও ভীষণ রকম ভাবে সক্রিয় বলে মনে করে বাংলাপক্ষ৷ এই পরিস্থিতিতেবাঙালি জাতির একতা এবং এই বাংলায় নিজেদের চাকরি বাজার, পুঁজি ব্যবসায় আধিপত্য যদি সুনিশ্চিত করতে হয়, তাহলে বাংলা ভাগ যেকোনও মূল্যে প্রতিহত করতে হবে বলে এদিনের সভায় উঠে আসে৷

- Advertisement -

এছাড়াও বাংলার প্রত্যেকটি সরকারি চাকরিতে ভূমিপুত্র সংরক্ষণ সুনিশ্চিত করতে বাংলা পক্ষ ভূমিপুত্র সংরক্ষণ আইন প্রণয়নের দাবিতে জোর সওয়াল করা হয়৷ বাঙালি তথা যেকোনও অহিন্দি জাতির প্রতিনিধিত্ব দিনের পর দিন যেভাবে যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকারি চাকরি গুলো থেকে কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে এবং হিন্দিতে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দিয়ে যেভাবে হিন্দি বলয়ের রাজ্যগুলো থেকে সেখানকার বাসিন্দাদের একতরফা চাকরির সুযোগ তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে, তাতে ভারতীয় যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোতে আঘাত নেমে আসছে সেই তথ্য তুলে ধরে বাংলা পক্ষ ভারতীয় যুক্তরাষ্ট্র সরকারের যেকোনও পরীক্ষায় বাংলা ভাষা বাধ্যতামূলক করার দাবিতে বাঙালির দীর্ঘমেয়াদি জনমত তৈরি করার বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করা হয়৷

garga chatterjee

এদিনের পথসভায় বাংলা পক্ষর সাধারণ সম্পাদক গর্গ চট্টোপাধ্যায় বলেন, বাংলা ও বাঙালির শত্রু বিজেপি যেভাবে দিনের-পর-দিন বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্র করছে এবং দলীয় সাংসদ বিধায়কদের কাজে লাগিয়ে দিনের-পর-দিন বাংলা ভাগের উস্কানি দিচ্ছে, এটা বাঙালি কোন ভাবে মেনে নেবে না৷ একইসঙ্গে ডানকুনি থেকে শ্রীরামপুর, শিলিগুড়ি পশ্চিম বর্ধমান সহ বিভিন্ন জায়গায় একের পর এক শিল্প নগরী গড়ে উঠেছে৷ সেখানে লক্ষ লক্ষ কর্মসংস্থান তৈরি হচ্ছে৷ এই কর্মসংস্থানে ৮৬% চাকরি বাঙালির হতে হবে৷ একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরিতে বাঙ্গালিদের বেদখল করার জন্য বাংলা ভাষায় পরীক্ষা নেওয়া হয় না৷ অথচ হিন্দিতে পরীক্ষা নেওয়া হয়৷ আমরা কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরিতে বাংলা ভাষায় পরীক্ষা দেওয়ার অধিকার চাই।

Koushik Maity

বাংলা পক্ষ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কৌশিক মাইতি জানিয়েছেন, ভারতের প্রায় প্রতিটি রাজ্যে নূন্যতম ৭৫ শতাংশ ভূমিপুত্র সংরক্ষণ আইন পাস হয়েছে বা তার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। বাংলা ভারতের অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ৷ তাই সব জায়গায় যে বাস্তবতা, সেই বাস্তবতা বাংলাতেও চাই। বাংলা ভাগ করে বাঙালিকে আর্থিকভাবে দুর্বল করার যে ষড়যন্ত্র দীর্ঘদিন ধরে হিন্দি সাম্রাজ্যবাদী বিজেপি করে চলেছে, তার বিরুদ্ধে বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য জেলায় জেলায় বাংলা পক্ষ লড়ছে। যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকারের সমস্ত পরীক্ষায় সেভাবেই হিন্দি বাধ্যতামূলক, সেভাবে বাংলা ভাষাতেও পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে। বাংলা পক্ষ সমস্ত বিষয়গুলো বাঙালির সামনে তুলে ধরেছে।

বাংলা পক্ষ কেন্দ্রীয় কমিটির আরেক সদস্য তথা বাংলা পক্ষ হুগলি জেলার অন্যতম মনন মন্ডল জানিয়েছেন, বাংলা ভাগের চক্রান্ত হিন্দি সাম্রাজ্যবাদের দীর্ঘদিনের। বাঙালিকে যেনতেন প্রকারে দুর্বল করে সেই জায়গায় বাইরে থেকে নিজেদের লোক এনে বসিয়ে বাংলার সবকিছু দখল করার চেষ্টায় বহিরাগত শক্তিরা অবিরত কাজ করে যাচ্ছে। বাংলার মাটিতে যদি বাঙালি জাতির প্রতিনিধিত্ব সুনিশ্চিত করতে হয়, তাহলে আমাদের সবকিছুকে যদি আমাদের নিজেদের করে সামলে যত্নে রাখতে হয় তাহলে চাকরি বাজার পুঁজি ব্যবসা টেণ্ডার লাইসেন্স সমস্ত কিছুকে নিজেদের হাতে রাখতে হবে এবং তার জন্য প্রত্যেকদিন একে অপরকে সাহায্য করে যেতে হবে। না হলে প্রতিদিন দখলদারি বাড়বে৷ বাঙালি তার মাটিতে সংখ্যাধিক হলেও, আমাদেরকে প্রতিদিন পরাস্ত করার চেষ্টা. আমাদেরকে প্রতিদিন দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিক করে তোলার প্রক্রিয়া বহিরাগত হিন্দি সাম্রাজ্যবাদীরা চালিয়ে যাবে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss