Holiday Tips: ছুটি উপভোগ করতে গিয়ে যেন ঋণের ফাঁদে পড়বেন না

Date:

Share post:

একটা প্রকল্প ইদানিং দেখা যাচ্ছে – এখন ছুটি (holiday) উপভোগ করুন পরে পেমেন্ট করবেন৷ এই প্রকল্প অনুসারে কেউ চাইলে এই হলিডে প্যাকেজে নিতে পারেন এবং ছুটি কাটিয়ে ফিরে আসার পর মূলত পেমেন্ট করতে হবে৷ তবে এই সুযোগ তাদেরকেই দেওয়া হবে যাদের ক্রেডিট স্কোর খুব ভাল রয়েছে ৷ ওই গ্রাহকের ক্রেডিট স্কোর নির্ধারণ করবে নন ব্যাংকি ফিনান্স কোম্পানি (এনবিএফসি) যেটি আবার ওই ট্রাভেল এজেন্সির পার্টনার।
আবেদন অনুমোদন হয়ে গেলে ওই ভ্রমণকারীকে গোটা খরচের একটা অংশ দিতে হবে প্রাথমিক পেমেন্ট হিসেবে। তার কাছে বিকল্প হিসেবে

বাকী অর্থ বেড়িয়ে আসার পর মিটিয়ে দিতে পারেন সেক্ষেত্রে কোনও অতিরিক্ত অর্থ চার্জ করা হবে না। কিন্তু ওই ভ্রমণকারী চাইলে বাকী অর্থ মাসে মাসে কিস্তি হিসেবে দিতে পারবেন তবে সেক্ষেত্রে এনবিএফসি কিছুটা সুদ চার্জ করবে। এখন দেখা যাক কতটা কার্যকরী হবে এই প্রকল্পটি৷ বর্তমান পরিস্থিতিতে যখন পর্যটন শিল্প রীতিমতো বিপর্যস্ত তখন এমন একটা প্রকল্প অবশ্যই অভিনব ৷ বর্তমান পরিস্থিতিতে ভ্রমণ সংস্থাটি এইরকম একটি প্রকল্প এনেছে যাতে ইচ্ছুক ভ্রমণকারীদের বেড়ানোর খরচের চাপ আপাতত কিছুটা নমনীয় করে সুরাহা করা যায় কারণ তা পরে পেমেন্টে করার সুযোগ দিয়ে৷ আপাতদৃষ্টিতে প্রকল্পটি আকর্ষণীয় মনে হলেও এটাই শ্রেষ্ঠ উপায় মনে করা উচিত হবে না৷ কারণ এই প্রকল্পের সুযোগ নিলে কিছু ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে৷

প্রথমত ঋণ খেলাপি হওয়ার একটা ঝুঁকি থাকছে৷ যেহেতু ওই ব্যক্তি এই প্রকল্পটি গ্রহণ করলেন ফলে তার বেড়িয়ে ফিরে আসার পর বাকি অর্থ পেমেন্ট করার একটা দায় থাকছে৷ এবার তিনি যদি ছুটি কাটিয়ে ফিরে এসে তা না মিটিয়ে বাকী অর্থ মাসিক কিস্তিতে পেমেন্ট করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে তার ঋণখেলাপি হওয়ার একটা ঝুঁকি থাকে৷ কারণ তখন যদি তিনি কোনও ভাবে মাসিক কিস্তি দিতে ব্যর্থ হন৷ তাহলে ওই ব্যক্তির ক্রেডিট স্কোর রীতিমতো ধাক্কা খাবে৷ সেক্ষেত্রে ভবিষ্যতে কোনও প্রয়োজনে ওই ব্যক্তির ঋণ পেতে অসুবিধা হবে৷

দ্বিতীয়ত যদি ওই ব্যক্তি তাঁর ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন বাকী অর্থ পেমেন্ট করার জন্য তাহলে ঋণের ঝুঁকিতে পড়বেন৷ কারণ ওই ঋণ পরিশোধ করতে কয়েক মাস কিংবা বছর লেগে যাবে৷ তাছাড়া মাথায় রাখতে হবে এই ধরনের ভ্রমণে যাওয়ার আগে তাঁর আরও কিছু খরচ রয়েছে, যেমন- কোভিড-১৯ পরীক্ষা , বেড়াতে গেলে প্যাকেজের বাইরে কেনাকাটা বা অন্যান্য আরও কিছু খরচ থেকেই যায়৷

spot_img

Related articles

মথুরাপুরে বোর্ড গঠনে আদালতের নির্দেশেও দেখা নেই পুলিশের

আজ বোর্ড গঠন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার মথুরাপুর ব্লকের কৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে। গত মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্ট বিরোধী প্রার্থীদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছিল। নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ আদালত দিলেও এখনও পুলিশের দেখা নেই। পুলিশ না এলে আতঙ্ক...

Murshidabad: পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনের সময় খড়গ্রামে খুনের ঘটনায় সিভিক পুলিশ ধৃত

খড়গ্রামে জয়ী প্রার্থীর ছেলেকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার এক সিভিক। জয়ী কংগ্রেস প্রার্থীর ছেলেকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ ওঠে। ঘটনায় জখম আরও একজন। স্থানীয় সূত্রে খবর কংগ্রেসের টিকিটে জয়ের পর যোগ দেন নিহতের মা। আগেই তিনজন তৃণমূল সমর্থককে গ্রেফতার করেছে পুল...

Rahul Gandhi: ফ্লাইং কিস দিতে না দেখলেও অভিযোগপত্রে সই ‘ড্রিম গার্লে’র

সংসদে রাহুল গান্ধীকে (Rahul Gandhi) 'ফ্লাইং কিস' (Flying Kiss) দিতে দেখেননি বলেছেন বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনী (Hema Malini)। The post Rahul Gandhi: ফ্লাইং কিস দিতে না দেখলেও অভিযোগপত্রে সই ‘ড্রিম গার্লে’র appeared first on Kolkata 24x7 | Bangla News | La...

Recruitment Corruption: কোচবিহারের ৩০ প্রাথমিক শিক্ষককে তলব সিবিআইয়ের

নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় (Recruitment Corruption) মেদিনীপুর,মুর্শিদাবাদ, বাঁকুড়ার পর এবার কোচবিহারের শিক্ষক তলব। কোচবিহারের তিরিশ জন প্রাথমিক শিক্ষককে তলব করল সিবিআই The post Recruitment Corruption: কোচবিহারের ৩০ প্রাথমিক শিক্ষককে তলব সিবিআইয়ের appear...