ATK Mohun Bagan: ঘুরে দাঁড়ানোর বার্তা সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্গানের

544

ভারতীয় ফুটবল দলের ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্গান আবার ATK মোহনবাগানে (ATK Mohun Bagan) যোগ দিয়েছেন। ২৮ বছর বয়সী ডিফেন্ডার পারস্পরিকভাবে ক্রোয়েশিয়ান শীর্ষ-স্তরের লিগ ক্লাব HNK সিবেনিকের সাথে তার চুক্তি বাতিল করার পরে বৃহস্পতিবার সবুজ মেরুন বিগ্রেডে যোগদানের বিষয়টি ঘোষণা করেছেন।

ATK মোহনবাগান দলে পুনরায় যোগদান প্রসঙ্গে ফুটবলার সন্দেশ ঝিঙ্গান টুইটারে নিজের প্রতিক্রিয়ায় পোস্ট করেন, “ATK মোহনবাগান এফসিতে ফিরে আসতে পেরে আমি খুব খুশি৷ তারা আমার কাছে একটি পরিবারের মতো এবং আমাকে সমর্থন করেছে বিশেষ করে গত কয়েক মাস ধরে যখন আমি এবং আমার পরিবার উভয়ই আমার চোটের কারণে এবং ফিল্ডের ব্যর্থতার কারণে অনেক সংগ্রাম করেছি৷এটা আপনাকে মনে করিয়ে দেয় যে আপনার কাজ যতই কঠিন হোক না কেন,আপনার পরিকল্পনাগুলি যত বড়ই হোক না কেন, আপনি কখনই নিশ্চিত নন যে এটি আপনার পথে যাবে বা না হবে তবে এটি আপনাকে প্রতিদিন প্রচেষ্টা করা এবং আপনার স্বপ্ন থেকে শিক্ষা দিতে বাধা দেবে না।
আমি নিজে এবং নিজের পরিবার নিয়ে গর্বিত আমরা ওই পথে এগোতে পেরেছি।এটারর জন্য অনেক সাহস লাগে এবং এটাকে কখনও শট না দিয়ে চেষ্টা করা সর্বদা ভাল”৷

ঝিঙ্গান ওই টুইট বার্তায় লেখেন,”আমিও ধন্যবাদ দিতে চাই HNK সিবেনিকে দলকে আমায় সুযোগ দেওয়ার জন্য এবং বাকি মরসুমের জন্য আমার সমস্ত সতীর্থদের শুভ কামনা করি”।

টুইটের ওই পোস্টে সদ্য সবুজ মেরুন শিবিরে যোগ দেওয়া ডিফেন্ডার বলেন,”অবশেষে, আমি আমার পরিবারে ফিরে এসেছি এবং বড় একটা মরসুমের জন্য তেতে রয়েছি এবং শুরুটা করতে চাই জয় দিয়ে প্রিয় সমর্থকদের উদ্দ্যেশ্যে।
শুভ নববর্ষ এবং নিজের মনের মানুষের খেয়াল রেখো।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার হায়দরাবাদ এফসি’র বিরুদ্ধে ম্যাচে ATK মোহনবাগান ২-২ গোলে ড্র করেছে। ATK মোহনবাগান হায়দরাবাদ এফসির বিরুদ্ধে ড্র করাতে সবুজ মেরুন শিবিরের টাইটেলশিপের প্লে অফে যাওয়ার রাস্তায় বাধা পড়েছে। জানুয়ারি ৮ তারিখ হুয়ান ফেরান্দোর ছেলেদের ওডিশা এফসির বিরুদ্ধে খেলতে হবে এবং জিততেই হবে।

আর এমন টাইটেলশিপ সিচুয়েশন হল ATK মোহনবাগানের কাছে ম্যাচের শেষ মুহুর্তে গোল হজম করায়। শেষ মুহুর্তে গোল না খেলে সবুজ মেরুন বিগ্রেড শুধু পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে যেত তাইই নয়, প্লে অফের টিকিটও পকেটে পুড়ে ফেলতো। কিন্তু হল উলটপূরাণ। শেষ মুহুর্তে হুয়ান ফেরান্দোর ছেলেরা হায়দরাবাদ এফসির বিরুদ্ধে ২-২ গোলে ড্র করে নিজেদের কাজটা নিজেরাই কঠিন করে তুললো।