সমালোচকদের ফুঁৎকারে উড়িয়ে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী ক্যাপ্টেন কোহলি

428
Captain Kohli

স্পোর্টস ডেস্ক: আগামী রবিবার, টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার ১২ নক আউটে ভারত নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে,নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। ম্যাচের আগের দিন শনিবার ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি প্রি ম্যাচ প্রেস কনফারেন্সে এসে পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, “ভারতের ক্রিকেট ভক্তের দল নিউজিল্যান্ড ম্যাচ নিয়ে আতঙ্কিত হলেও, টিম ইন্ডিয়া মোটেও আতঙ্কিত নয়।”

প্রি ম্যাচ প্রেস কনফারেন্সে ক্যাপ্টেন কোহলি বলেছেন,”আমার মতে যদি বিশ্বকাপ জিততে চাইলে, প্রতিটি ম্যাচে ফোকাসড ধরে রাখতে হবে। আপনি বেছে নিতে পারবেন না এই স্তরে এসে যে কার বিরুদ্ধে আপনাকে জিততে হবে এবং কোন দলকে হাল্কা ভাবে খেলতে হবে, এমন খেলা যায়না এবং খেলিনি, এমনকি আগামী দিনেও আমরা এভাবে খেলবো না।”

ভারত, নিউজিল্যান্ড দুই দলই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারের মুখ দেখেছে। ভারতের কাছে নিউজিল্যান্ড ম্যাচ চলতি বিশ্বকাপে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ। টিম ইন্ডিয়া মুখিয়ে রয়েছে কিউইদের বিরুদ্ধে বাইশ গজে উইনিং ট্র‍্যাকে ফিরে আসতে। এই প্রসঙ্গে আত্মবিশ্বাসী ক্যাপ্টেন কোহলি বলেন,”বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্ট জিততে গেলে, ভালো পারফরম্যান্স করতে গেলে ওইদিনে সেরা করতে হবে, ওই সময়ে উপস্থিত থাকতে হয়।”

ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তান ১০ উইকেটের ঐতিহাসিক জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। বিশ্বকাপের পরিসংখ্যান এখন ১২-১। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে হিটম্যান রোহিত শর্মার রানের খাতা না খুলে এলবিডব্লু আউট হওয়া কিংবা বোলার মহম্মদ সামির ৩.৫ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে ফেলা, আর সামির পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বল হাতে পারফরম্যান্সের পরে মহম্মদ সামিকে টার্গেট করে ‘গদ্দার,’ ‘ধোকেবাজ’, ‘বেইমান ‘ কদর্য শব্দে ব্যক্তিগত আক্রমণ করাই হোক রবিবারে কিউইদের বিরুদ্ধে ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া এসব নিয়ে যে একেবারই ভাবলেশহীন তা বোঝাই গেল ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলির মুখে।

প্রি ম্যাচ প্রেস কনফারেন্সে ভারত অধিনায়ক কোহলি বলেন,”বাইরে লোকে কি বলছে তা নিয়ে আমাদের কোনও যায় আসেনা।আমি জানি আমাদের অনেক সার্পোটিং ফ্যান আছে। আমি তাদের প্রশংসা করতে চাই যারা আমাদের সিচুয়েশন (বিশ্বকাপ চলাকালীন দলের গোটা পরিবেশ এবং পরিস্থিতি) বুঝতে পারছে।”

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারের পর দেশের ভিতরে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ টিম ইন্ডিয়া। এই প্রসঙ্গে বিরাট মুচকি হেসে ভারতে চলতে থাকা সমালোচকদের খোঁচা মেরে বলেন,”আমাদের এখন ক্রিকেট খেলতে হবে। আর যাদের মধ্যে ধৈহ্য থাকে না, তারাই তাড়াতাড়ি সবথেকে বেশি প্যানিক অর্থাৎ আতঙ্ক তৈরি করে থাকে,সব কিছু খতম (শেষ) হয়ে গেল বলতে থাকে।”

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হেরে গিয়ে ভারতের ক্রিকেট ভক্তের একদল বলছে সবকিছু খতম (শেষ) হয়ে গেল৷ এই প্রসঙ্গে সমালোচকদের আশ্বস্ত করে ক্যাপ্টেন কোহলি বলেছেন, “আমরা এভাবে চিন্তা করিনা। বাইরের লোকেদের মতো চিন্তা করতে থাকলে, আমরা দুনিয়ার সেরা টিম হয়ে থাকবো না। এই কারণে আমরা দলগত ভাবে সকল সময়ে নিজেদের এই বিষয় থেকে বিচ্ছিন্ন রাখি, তা সে, যে পরিস্থিতি হোক না কেন- আমরা হারি আর জিতি।”

ভারতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টিম ইন্ডিয়া কিংবা রোহিত শর্মার ব্যাটিং এবং মহম্মদ সামির বোলিং পারফরম্যান্স ঘিরে সমালোচকেরা লাগাতার কাঁটাছেড়া করে চলেছে। এই নিয়েও বিরাট কোহলি বলেছেন, “আমরা বারে বারে ক্যামব্যাক করেছি দলগত প্রচেষ্টায়। আমাদের কাউকে প্রমাণ দেওয়ার প্রয়োজন নেই, কাউকে ব্যক্তিগত ভাবেই হোক কিংবা দলগত ভাবে।”

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয় নিয়ে প্রত্যয়ী টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলি সমালোচকদের টার্গেট করে তাচ্ছিল্যের সুরে এদিন দাবি করেছেন,”বাইরের লোকেরা কি বলছে,আমাদের টিম নিয়ে দেশের ভিতরে কি মাহল অর্থাৎ হাওয়া চলছে… ক্যাপ্টেন কোহলি বাইশ গজে ব্যাটিং করার সময়ে যেভাবে আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে ফ্রন্টফুটে বোলারদের শাসন করে থাকেন একই ভঙ্গিতে মুখ বেঁকিয়ে বিরাট ওই প্রসঙ্গে বলেদেন,”আমাদের জন্য কোনও কিছুই ম্যাটার করে না। আমি এর আগেও অনেক বার বলেছি এই নিয়ে,আগামী দিনেও আমি এই একই কথা বলবো,লোকে যা খুশি তাই বলুক তাতে আমাদের কিছু ফারাক পড়ে না, অর্থাৎ যায় আসে না।”

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ভারতের বিশ্বকাপ পরবর্তী ভবিষ্যৎ নিয়ে ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলির চিন্তাভাবনা রবিবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রি ম্যাচ কনফারেন্সে বেরিয়ে এসেছে। বিরাট বলেছেন, “আমরা সঠিক ভাবে জানি আমাদের কি করতে হবে এই টুর্নামেন্টে এবং আগামী কয়েক বছরে ভারতীয় টিমকে এগিয়ে নিয়ে যেতে।”