9.9 C
London
Monday, November 28, 2022
Homeস্পোর্টস-স্পটISL: মুম্বই সিটি এফসি'র বিরুদ্ধে ড্র করল এসসি ইস্টবেঙ্গল

Latest Posts

ISL: মুম্বই সিটি এফসি’র বিরুদ্ধে ড্র করল এসসি ইস্টবেঙ্গল

- Advertisement -

চলতি আইএসএল (ISL) টুর্নামেন্টের ১১ তম রাউন্ডের শেষ ম্যাচ মুম্বই সিটি এফসি’র বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্র করলো এসসি ইস্টবেঙ্গল। ১০ ম্যাচ হয়ে যাওয়ার পরেও জয় অধরা লাল হলুদ বিগ্রেডের। হতশ্রী ফুটবল রেড এন্ড গোল্ড শিবিরের ফুটবলারদের,অথচ দলের অন্তবর্তীকালীন হেডকোচ রেনেডি সিং ম্যাচ চলাকালীন নিজের একশা শতাংশ এনার্জি নিঙড়ে দিলেন ‘গোল কানা’ লাল হলুদ ফুটবলারদের পিছনে। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক তথা হেডকোচ রেনেডি সিং’র এমন এনার্জি লেভেল এখন সোশাল মিডিয়াতে ভাইরাল।

প্রথমার্ধে শুধুই দুদলের সুযোগ নষ্টের প্রদর্শনী ম্যাচ উপহার।এসসি ইস্টবেঙ্গলের গোটা প্রথমার্ধের খেলার নির্যাস ৬ মিনিটে হীরা মণ্ডলের ৩৫ গজ দূর থেকে নেওয়া বা পায়ের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।৮ মিনিটে সৌরভ দাসের ডান পায়ের শট বক্সের অনেক ওপর দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া।১০ মিনিটে হীরা মণ্ডলের পাস থেকে ড্যানিয়েল চিমা চুকুউর হেডার সেভ হওয়া। ১৩ এবং ২১ মিনিটে চিমা চুকুউ ফের গোলের সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে না পারা।চিমা চুকুউ’র পাস থেকে বিকাস জাইরুর বা পায়ের শট বক্সের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া। ১৯ মিনিটে লাল হলুদ ডিফেন্ডার লৌরেনকো চোটের জন্য মাঠ ছাড়ে,বদলি হিসেবে মাঠে নামে অঙ্কিত মুখার্জী। ৩৬ মিনিটে মুম্বই সিটি এফসি’র ডিফেন্সিভ হাফ থেকে চিমা চুকুউ ফ্রিকিক পায়।৪০ মিনিটে হ্যান্ডবল হাওকিপের।

- Advertisement -

অন্যদিকে মুম্বই সিটি এফসিও গোল নষ্টের প্রতিযোগিতায় কম যায়নি,এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে প্রথমার্ধে। ৯ মিনিটে ভিঙ্গনেসের পাস থেকে আঙ্গুলোর হেডার লাল হলুদ বক্সের ভিতর সেভ হয়ে যায়।২৩ মিনিটে আহমেদ জাহৌহ ডান পায়ের শট ৩৫ গজেরও বেশি দূর থেকে বাম দিকে মিস করেন।৩৩ মিনিটে রেনিয়ার ফার্নান্ডেজ ফ্রিকিক পায় ডান দিকের উইং থেকে।৩৯ মিনিটে রালতের ডান পায়ের শট বা দিক ঘেঁষে বক্সের বাইরে চলে যায়।৪৬ মিনিটে আহমেদ জাহৌহ ফের গোলের সুযোগ পায়,কিন্তু রেনিয়ার ফার্নান্ডেজের কাছ থেকে পাওয়া বলকে জাহৌহ ডান পায়ে শট নিলেও, বল বক্সের অনেক ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়।

গোটা প্রথমার্ধে এমন ছন্নছাড়া ফুটবল চলতি আইএসএলে লিগের সেকেন্ড বয় মুম্বই সিটি এফসি বনাম লাস্ট বয় এসসি ইস্টবেঙ্গল ম্যাচে। প্রথমার্ধ গোলশূন্যতে শেষ হয়।

বিরতির পর ৬৭ মিনিট সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরেও কোনও দলই গোলের লকগেট খুলতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে দু’দলই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে থাকে, সঙ্গে গোলের সুযোগও হাতছাড়া করতে থাকে একের পর এক। গোল করার তাগিদ থাকলেও ৭১ মিনিটেও ম্যাচের ফলাফল ছিল গোলশূন্য।
পালা করে মুম্বই সিটি এফসির আঙ্গুলো,রেনিয়ার ফার্নান্ডেজ, মুর্তাদা ফল, ক্যাসিও গ্যাব্রিয়েল,আহমেদ জাহৌহ কেউই গোলের সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারে নি।

অন্যদিকে, ৫০ মিনিটে হাওকিপ,৫৯ মিনিটে ড্যানিয়েল চিমা চুকুউ গোলের সুযোগ পেলেও মুম্বই’র রুক্ষণ বক্সের ভিতর আটোসাটো হওয়াতে তা কোনও বিপদ ঘটাতে পারেনি।

ম্যাচের ৮৪ মিনিট কেটে গেলেও গোল কানা দু’দল। ম্যাচের বয়স যত গড়িয়েছে অফসাইডের ফাঁদ, কর্ণার থেকে গোলের সুযোগ হাতছাড়া করা,চিমা চুকুউর হ্যান্ডবল সমান তালে চলেছে, রেফারির শেষ বাঁশি বেজে ওঠা পর্যন্ত। ১১ জানুয়ারি লাল হলুদ শিবিরের পরের ম্যাচ জামশেদপুর এফসি’র বিরুদ্ধে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss