অশ্বিনের ‘ব্যাক ফ্লিপ’ ডেলিভারি নিয়ে দরাজ সার্টিফিকেট সচিনের

বিশ্বকাপে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের পারফরম্যান্স দেখে অভিভূত ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটার

409
Sachin's certificate with Ashwin's 'back flip' delivery

Sports desk: টি-২০বিশ্বকাপের সুপার ১২ নক আউটে ভারত (India) নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের (Afghanistan) বিরুদ্ধে ৬৬ রানে টুর্নামেন্টে প্রথম জয় পেয়েছে। আফগানদের (Afgan) বিরুদ্ধে সাড়ে চার বছর পর সাদা বলে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ১৪ রানে ২ উইকেট নিয়ে জ্বলে ওঠেন।

দীর্ঘ সাড়ে চার বছর পর চলতি বিশ্বকাপে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের পারফরম্যান্স দেখে অভিভূত ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর। বিশেষত, অশ্বিনের ‘ব্যাক ফ্লিপ’ ডেলিভারি নিয়ে এতটাই উল্লসিত মাস্টার ব্লাস্টার যে সামাজিক মাধ্যমে স্যাডো বোলিং ডেলিভারির মাধ্যমে গোটা বোলিং অ্যাকশনকে বিশ্লেষণ করেছেন।

বৃ্হস্পতিবার সচিন বলেন,”অশ্বিনের আলাদা ভেরিয়েশন বোলিং ডেলিভারি হল ব্যাক ফ্লিপ। যা পিছন থেকে ছাড়া হয় আঙুলের সাহায্যে ক্যারাম বলের মতো।” সচিন স্যাডো বোলিং অ্যাকশন করে দেখান যে,”ডান হাতের তর্জনীতে বলকে ভারসাম্যে রেখে ডানহাতের বুড়ো আঙুল পিছনে ঠেলে দিয়ে এই ব্যাক ফ্লিপ ডেলিভারি করা হয়ে থাকে।”

চার বছর পর রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে ম্যাচে বল করতে দেখে সচিনের প্রতিক্রিয়া,”কিভাবে তিনি ম্যাচে নিজেকে এক্সিকিউট (পারফরম্যান্স মেলে ধরা) করেছে তা সুপার্ব।”

অশ্বিনের ব্যাক ফ্লিপ ডেলিভারি প্রসঙ্গে সচিন বলেন “এই ডেলিভারি আঙুলের পিছন থেকে রিলিজ করা হয়। ক্যারাম বলে ব্যাক ফ্লিপ ডেলিভারি রিলিজ হতেই ঘুরতে থাকে। কিন্তু আফগানিস্তানের (Afghanistan) বিরুদ্ধে সাদা বলের ম্যাচে ব্যাক ফ্লিপ ডেলিভারি রিলিজ হতে ইনসুইং ডেলিভারি হয়েছে, বলের সিম পজিশনে ওই ডেলিভারি সাদা বলে লেগ স্লিপমুখি হয়ে থাকে। আর অন্যদিকে আউটসুইং ডেলিভারির ক্ষেত্রে সিম মুভমেন্ট প্রথম এবং দ্বিতীয় স্লিপ মুখি হয়ে থাকে, যা আউটসুইং’র মতো মুভ করে।”

সচিন এখানে অশ্বিনের বোলিং ডেলিভারির উন্নতির প্রশংসা করে বলেন,”ভারতের (India) নেট সেশনে অশ্বিনের এই ডেলিভারি হয়তো কেউই পায়নি ফেস করার জন্য ব্যাটিং সেশনে।” এখানেই অশ্বিনের কৃতিত্ব বোঝাতে গিয়ে মাস্টার ব্লাস্টার বলেন,”আফগানিস্তানের (Afghanistan) বিরুদ্ধে ৪ ওভার বল করেও অশ্বিন কোনও বাউন্ডারি খায় নি। এই ধরনের ডেলিভারি ফেস করার জন্য অনুশীলনের দরকার আর অশ্বিন নিজের অভিঞ্জতা দিয়ে আফগানিস্তানের (Afghanistan) বিরুদ্ধে বল করায় ব্যাটসম্যানরা (আফগান) সহজে মানিয়ে নিতে পারছিল না।” সচিনের কথায়,”এই জয়, বড় জয় ৬৬ রানে আমাদের জন্য জরুরি ছিল।ভারত (India) ভাল খেলেছে ওয়েল ডান ইন্ডিয়া (India) । “