T20 World Cup: প্রাক্তন ক্রিকেটার ও ভক্তদের হতাশা প্রকাশ সোশাল মিডিয়ায়

389
virat-india

স্পোর্টস ডেস্ক: দুই ম্যাচে দুটিতেই হারের মুখ দেখে ভারতীয় দল বিপর্যস্ত ও ক্ষতবিক্ষত। চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়া এখন খাঁদের কিনারায় দাঁড়িয়ে। ব্ল্যাকক্যাপদের কাছে হারের ফলে ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠার আশা সরু সুতোয় ঝুলে গিয়েছে।

যদিও দল দেশে ফিরে আসার পরে ভারতের লজ্জাজনক পারফরম্যান্সের তদন্ত অবশ্যই বিসিসিআই করবে! নিউজিল্যান্ডের কাছে লজ্জার হারের পরে সোশাল মিডিয়ায় প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং ভক্তরা ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে তাদের বক্তব্য রেখে চলেছেন।

বীরেন্দ্র সেহবাগ, ওয়াসিম জাফর, ভিভিএস লক্ষ্মণের মতো দ্বিগজ্জ প্রাক্তন ক্রিকেটারেরা নিজেদের হতাশা প্রকাশ করেছেন। আবার কিছু ক্রিকেট ভক্ত মিম শেয়ার করে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের পারফরম্যান্সের নিন্দা করেছেন।

বীরেন্দ্র সেহবাগ টুইটে লিখেছেন,”ভারতের থেকে খুবই হতাশাজনক। নিউজিল্যান্ড আশ্চর্যজনক ছিল. ভারতের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দুর্দান্ত ছিল না, খারাপ শট সিলেকশন এবং অতীতের কয়েক বারের মতো, নিউজিল্যান্ড কার্যত নিশ্চিত করেছে যে আমরা পরবর্তী ধাপে উঠতে পারব না। এটি ভারতকে আঘাত করবে এবং কিছু গুরুতর আত্মদর্শনের জন্য সময় দেবে #IndvsNZ”

https://twitter.com/virendersehwag/status/1454859973003862022?s=20

ভিভিএস লক্ষণ টুইট পোস্টে লিখেছেন, “এই পরাজয় টিম ইন্ডিয়াকে কষ্ট দিতে হবে। ব্যাট হাতে অস্থায়ী, তাদের শট নির্বাচন প্রশ্নচিহ্নে। নিউজিল্যান্ড দুর্দান্ত বোলিং করেছে, কিন্তু ভারত তাদের কাজ সহজ করে দিয়েছে। তাদের নেট রান রেটও মার খেয়েছে, সেমিফাইনালের জায়গাটা দূরের স্বপ্ন দেখায় #INDvNZ #T20WorldCup”

ভারতের প্রাক্তন টেস্ট দলের ওপেনার ওয়াসিম জাফর টুইটে মহাকাব্যে ধৃতরাষ্ট্র চরিত্রের সংলাপ পোস্ট করে লিখেছেন”ইয়ে কেয়া হো রহা হেঁ।”

বিশিষ্ট ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার এবং ক্রিকেট পন্ডিত হর্য ভোগলের টুইট পোস্ট এরকম,”ভারত প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি। এবং যখন এটি সর্বদা গ্রুপে ত্রিমুখী লড়াই হতে চলেছে, আমি মনে করি না যে কেউ এটি আসতে দেখেছে।”

ভারতের প্রাক্তন কূটনীতিবিদ তথা কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর টুইট তাঁর কূটনীতিক পারদর্শিতা থেকে করা, “আমরা তাদের প্রশংসা করেছি, তাদের প্রশংসা করেছি, তাদের প্রশংসা করেছি এবং তাদের পুরস্কৃত করেছি। আমরা তাদের হারতে আপত্তি করি না কিন্তু তাদের লড়াই পর্যন্ত না করায় আমরা আপত্তি করি। ক্যাপ্টেনের আমাদের বলার দরকার নেই কী ভুল হয়েছে (আমরা নিজেরাই তা দেখতে পাচ্ছি); তাকে আমাদের বলতে হবে কেন!:”
অঙ্কুর ত্রিপাঠীর মিম এরকম, “আমি সর্বদা আমার দেশকে সমর্থন..
কিন্তু সত্য হল;_
#INDvNZ”

রিসু সিং’র ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচের রেজাল্টের পর বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মাকে নিশানা করে টুইটে মিম পোস্ট এরকম….

যদিও অনেকে কয়েন টসের মাধ্যমে বিরাট কোহলির পচা ভাগ্যের দিকে ইঙ্গিত করতে পারে, তবে পারফরম্যান্স ভারতের মতো বিশ্বমানের টিম থেকে প্রত্যাশার থেকে অনেক দূরে।

<

p style=”text-align: justify;”>টস যদিও খেলায় একটা ভূমিকা রেখেছে। ডিউ (শিশির) ফ্যাক্টরের কারণে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং সহজ হয়ে যাওয়ায় উভয় ক্ষেত্রেই ভারতীয় ব্যাটসম্যান নিয়ে সমালোচকনার কলম ধরতে হয়েছে। তা সত্ত্বেও ব্যাটিং পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, ২০ ওভারে সাত উইকেটে ১১০ রান করাই যথেষ্ট নয়।