কালীপুজোর আবহে রাজ্যে আবির্ভাব নতুন নেতা ‘শকুন অধিকারী’!

মমতাকে কটাক্ষ করে 'বেগম' বলতেন প্রচারে

665
Suvendu Adhikari, Kunal Ghosh

News Desk: বঙ্গ রাজনীতিতে বহু রাজনীতিকের বহু ব্যাঙ্গাত্মক নাম এসেছে। তাঁরা সবাই নিজ মহিমায় উজ্জ্বল। কেউ ‘কানা অতুল্য’, কেউ ‘খোঁড়া প্রফুল্ল’ কেউ ‘হরতাল দা’ এমনই সব নামের বাহার। বিধানসভা ভোটের প্রচারে আলোচিত নাম ছিল ‘বেগম’।

কিন্তু শকুন? এমনটা আগে শোনা যায়নি। প্রায় বিলুপ্ত এই পাখির তুলনায় অভিষিক্ত হয়েছেন খোদ বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

উপনির্বাচনে বিজেপির চূড়ান্ত পরাজয়কে চরম কটাক্ষ করে তৃণমূল কংগ্রেস মুখপাত্র কুণাল ঘোষের প্রবল ব্যাঙ্গাত্মক টুইট রাজনৈতিক মহলে শোরগোল ফেলে দিয়েছে। তিনি শকুন অধিকারী বলে শুভেন্দু অধিকারীকে চিহ্নিত করে আক্রমণ করেছেন।

উপনির্বাচনের আগে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রসঙ্গ টেনে শান্তিপুর কেন্দ্রের প্রচারে শুভেন্দুবাবুর একটি মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কু়ণাল ঘোষ টুইটে লিখেছেন, “বাংলাদেশে যা হয়েছে, তাতে আমরা শান্তিপুরে অনেক বেশি ভোটে জিতব।” – শুভেন্দু অধিকারী। তা এখন শকুন অধিকারী কোথায়? ধর্ম বেচে ভোট করা কুলাঙ্গার, বেইমান, কাপুরুষ, দলবদলু, ভীতু, মেরুদন্ডহীন, ধান্দাবাজ, ষড়যন্ত্রী, নির্লজ্জ, গিরগিটি, সুবিধেবাদী, গদ্দারটা নীরব কেন? কৈফিয়ত দিক।”

<

p style=”text-align: justify;”>শুভেন্দু অধিকারীকে শকুন অধিকারীতে অাখ্যায়িত করেছেন কুণাল ঘোষ। এর পরেও নীরব বিরোধী দলনেতা। গুঞ্জন তিনি ফের তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরছেন। বিধানসভায় ভোটে শুভেন্দুবাবু বারবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বেগম বলতেন।