স্বাভাবিক হচ্ছে পঞ্জশির, খুলছে সড়ক-টেলিকম পরিষেবা

552
The Panjshir Valley, the only area not taken by the Taliban or any invading force

নিউজ ডেস্ক: পরস্পর বিরোধী বার্তা আসছে ক্ষণে ক্ষণে। তালিবান (Taliban) দাবি করছে পঞ্জশির (Panjshir valley) তাদের দখলে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ও আফগান (Afghanistan) সংবাদ মাধ্যমেরও একই খবর। পঞ্জশিরের মূল সদর শহর সহ বিভিন্ন নগর, জেলা থেকে হটে গিয়েছে জুনিয়র মাসুদের আফগান রেজিস্ট্যান্স ফোর্স। ৩৪তম প্রদেশ হিসেবে পাঞ্জশিরের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালিবানরা। ঘোষণা করে অন্তর্বর্তী সরকার। 

আরও পড়ুন গেরিলা কায়দায় পঞ্জশিরকে তালিবান মুক্ত করতে মাসুদ বাহিনীর লড়াই

আবার সংবাদ মাধ্যমেই আসছে মাসুদ বাহিনীর ভিডিও বার্তা-লড়াই এখনও শেষ হয়নি। তালিকা জঙ্গি বিরোধী আফগান রেজিস্ট্যান্স ফোর্সের দাবি, পার্বত্যাঞ্চলে তাদের শক্তি অটুট। এর মাঝেই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে পঞ্জশির। টোলো নিউজ সূত্র জানা গিয়েছে, বিদ্যুত ব্যবস্থা চালু না হলেও পঞ্জশিরে খুলেছে রাস্তা। চালু হয়েছে বন্ধ হয়ে যাওয়া টেলিকম পরিষেবাও।

আরও পড়ুন তালিবানদের পঞ্জশির দখলের নেপথ্যে কি পাক বাহিনী?


আরও পড়ুন ২৫০০ বছরের অজেয় পঞ্জশিরের পতন, উড়ল তালিবান পতাকা

যদিও জঙ্গি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই জারি থাকবে জানায় আফগান রেজিস্ট্যান্স ফোর্স। পঞ্জশিরের পরিস্থিতি এখনও তীব্র সংঘাতময়। এখানেই একমাত্র তালিবান বিরোধী শক্তি সংগঠিত। তবে ক্রমাগত হামলায় তারা পিছু হটে যায়। পঞ্জশিরের সিংহ প্রয়াত আহমেদ শাহ মাসুদের বাড়ি দখল করে তালিবান। তাঁর পুত্র আহমেদ মাসুদ সরে গিয়েছেন পার্বত্য এলাকায়। শুধু তিনিই নন, তালিবানদের সঙ্গে সংঘাতের জেরে প্রায় ৯০% মানুষ পঞ্জশির ছেড়েছেন।

আহমদ মাসুদ, সোভিয়েত বিরোধী প্রতিরোধ আহমদ শাহ মাসুদ এর পুত্র

পঞ্জশিরের রাস্তার বিভিন্ন দিকে তাকালে এখন দেখা মেলে সশস্ত্র তালিবান যেদ্ধাদের৷ পঞ্জশির ঘিরে যখন রেজিস্টেন্স ফোর্সের পাহারা চলত, সে সময় সেখানকার মানুষ নিরাপদ মনে করতেন নিজেদেরকে৷ কিন্তু তালিবানদের পঞ্জশির দখলের পর সেখান থেকে সাধারণ মানুষ পালাতে শুরু করেন৷ যদিও এই জঙ্গি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই জারি থাকবে জানায় আফগান রেজিস্ট্যান্স ফোর্স। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর, মানুষের বাহিনী কাবুলের তালিবান সরকারকে কোনওভাবেই মেনে নেবে না বলেই জানিয়েছে।