BJP: শ্রাবন্তীর বিজেপি ত্যাগ, এবার কে? টলিপাড়ায় পদ্ম শুকোচ্ছে

হই হই করে এসেছিলেন বিধানসভা ভোটের আগে। তেমনই চলে গেলেন

0
762

News Desk: হই হই করে এসেছিলেন বিধানসভা ভোটের আগে। তেমনই চলে গেলেন। আর যাওয়ার আগে বলে গেলেন বিজেপি পশ্চিমবঙ্গের জন্য কিছুই করতে পারবে না। দলত্যাগের পর অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chatterjee) ট‍ুইটারে লিখেছেন, “শেষ রাজ‍্য নির্বাচনে আমি যেই দলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলাম, সেই বিজেপির সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করলাম আমি। কারণ বাংলাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিজেপির উদ‍্যোগ ও আন্তরিকতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে।”

বিধানসভা নির্বাচনের কিছু আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন শ্রাবন্তী। বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রের প্রার্থী হন। এরপর বিজেপির সাথে ক্রমশ দূরত্ব বাড়ছিল তাঁর। অবশেষে দলের সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করলেন তিনি।
শ্রাবন্তীর দলত্যাগে ইঙ্গিত টলিপাড়ায় যে পদ্ম দোলা লেগেছিল তা শুকিয়ে আসতে চলল। প্রশ্ন এবার কে ?

গুঞ্জন দলত্যাগের জন্য মুখিয়ে আছেন রুদ্র, হিরন। তবে তারা নীরব। এই নীরবতা আরও জল্পনা উস্কে দিয়েছে। বিশেষ করে পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়্গপুর কেন্দ্রের বিধায়ক অভিনেতা হিরণ। তাঁর সঙ্গে দিলীপ ঘোষের সম্পর্ক রীতিমতো গরম এখন। হিরণের দলত্যাগের সম্ভাবনা প্রবল। গুঞ্জন তেমনই লাইনে আছেন সাংসদ লকেট। আরও গুঞ্জন সুযোগ এলে দলত্যাগ করতে মরিয়া রূপা।

বিজেপিতে ধস নামছে। শুধু টলিপাড়ায় নয়, সরাসরি রাজনৈতিক ক্ষেত্রেও। অন্তত ১২ জন বিধায়কের দলত্যাগ হবে বলেই টিএমসি সূত্রে খবর। রাজ্যের সেচ মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রের ইঙ্গিত, খোদ বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী ফের তৃণমুলেই ফিরবেন। তবে শুভেন্দুবাবু জানান, মন্ত্রী সুরা পান করে এসব বলছেন।