আরও ছয় দাবি জানিয়ে আলোচনার জন্য মোদিকে খোলা চিঠি কৃষকদের

417
Farm Laws Repeal

News Desk: গত সপ্তাহে বিতর্কিত তিন কৃষি আইন (farm law) প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (narendra modi)। ওই ঘোষণার পর কৃষকরা তাঁদের আরও ৬ টি দাবি নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য খোলা চিঠি দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে।

রাজনৈতিক মহল মনে করছে, কেন্দ্রের ওপর চাপ বজায় রাখতেই কৃষক নেতারা এই চিঠি দিয়েছেন। প্রশ্ন হল, কৃষক নেতারা আলোচনার জন্য কোন কোন বিষয়ে উত্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া চিঠিতে?

ওই চিঠিতে কৃষকরা জানিয়েছেন, চাষিদের জন্য ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (msp) নিশ্চিত করার আইন তৈরি করতে হবে। কৃষকদের বিরুদ্ধে গত এক বছরে বিভিন্ন জায়গায় যে সমস্ত মামলা দায়ের করা হয়েছে সেগুলি অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। গত একবছরে আন্দোলন করতে গিয়ে যে সমস্ত কৃষকের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের স্মরণে সিংঘু (singhu) সীমান্তে একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করতে হবে। বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল প্রত্যাহার করতে হবে।

এছাড়াও কমিশন ফর এয়ার কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট ইন ন্যাশনাল ক্যাপিটাল অ্যান্ড অ্যাডজয়েনিং এরিয়াস অ্যাক্ট ২০২১ আইনে কৃষকদের বিরুদ্ধে যে সমস্ত শাস্তিমুলক পদক্ষেপ করা হয়েছে সেগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরির ঘটনায় অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে মন্ত্রিসভা থেকে বরখাস্ত এমনকী, তাঁকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন কৃষকরা।

farmers' protest site in Singhu border

একই সঙ্গে কৃষকরা এদিন প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন, কেন্দ্র যেন গত এক বছরে আন্দোলন করতে গিয়ে মৃত কৃষকদের পরিবারকে সাহায্য করতে উদ্যোগী হয়। কৃষক নেতাদের দাবি, গত একবছরে আন্দোলন করতে গিয়ে ৬৭০ জন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ্য, লখিমপুরে আশিস মিশ্রের গাড়ির চাকায় পিষ্ঠ হয়ে মৃত্যু হয়েছিল ৪ কৃষকের। এই সমস্ত দাবিগুলি নিয়ে আলোচনার জন্য যত শীঘ্র সম্ভব প্রধানমন্ত্রীকে বৈঠক ডাকার পরামর্শ দিয়েছেন কৃষক নেতারা। ওই চিঠিতে তাঁরা স্পষ্ট বলেছেন, এই দাবিগুলি নিয়ে যতদিন না একটা সমাধান বের হচ্ছে ততদিন আন্দোলন আগের মতোই বহাল থাকবে।

ওই চিঠিতে কৃষক নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন, আপনি আমাদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার কথা বলেছেন। এজন্য আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তার উপর খোলা আকাশের নিচে বসে থাকতে আমাদেরও ভালো লাগছে না। আমরাও পরিবারের কাছে ফিরে যেতে চাই। আবার নতুন করে কৃষি কাজ শুরু করতে চাই। তাই আপনাকে আমাদের অনুরোধ যত শীঘ্রই সম্ভব এই সমস্যা মিটিয়ে নিন।