NRC: ১৬শো কোটির বেশি জলে যাচ্ছে! সাদা হাতিতে পরিণত নাগরিকপঞ্জীর কাজ

বিজেপি শাসিত অসম সরকার NRC-কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে

613
NRC aasam

News Desk: প্রায় ১৬০২.৬৬ কোটি টাকা খরচ করে কার্যত সাদা হাতিতে পরিনত হতে চলেছে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি ) নবায়ন প্রক্রিয়া। অতলে যাওয়ার পথে একাজ। এনআরসি নবায়ন কাজে ঢিলেমি আসায় বহু মানুষের মনে আশংকা যাদের নাম বাদ পড়েছে তাদের কী হবে।

অসমে এনআরসি তালিকায় নাম না আসা প্রায় ১৯ লক্ষ মানুষ এখনো নিজের নাগরিকত্ব প্রমান করতে পারেননি। কথা ছিল নাগরিকপঞ্জী ছুটরা ১২০ দিনের মধ্যে ট্রাইবুনালে নাগরিকত্ব প্রমানের সুবিধা পাবেন। কিন্তু বাস্তবে কিছুই হল না। তাদের বিষয়টি ঝুলেই রইলো।

সম্প্রতি আরটিআই আবেদনে উঠে এসেছে বিস্ফোরক তথ্য। যেখানে বলা হয়েছে এনআরসি চূড়ান্ত খসড়ায় প্রায় এক হাজারের অধিক সন্দেহভাজন লোকের নাম রয়েছে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে জেলাশাসকের পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। এনআরসির স্টেট কো-অর্ডিনেটর ওই আর টি আই -এর জবাব দিতে গিয়ে এমনটাই উল্লেখ করেছেন।

NRC aasam

অসমে ৩ কোটি ২৯ লক্ষ আবেদনকারীর মধ্যে ১৯ লক্ষ মানুষের নাম ২০১৯ সালের ৩১ আগস্ট প্রকাশিত চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এর জেরে প্রবল উত্তপ্ত হয়েছিল অসম। উল্লেখ্য ,বিজেপি শাসিত অসম সরকার সেই এনআরসি-কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে। তারা এটাকে মানতে চাইছে না।

অসম সরকার বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় কম পক্ষেও ৩০ শতাংশ ও রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তে ১০ শতাংশ জনসংখ্যা অনুপাতে পুনরায় যাচাইয়ের দাবি করেছিল। এমনকি, এনআরসি-এর স্টেট কোঅর্ডিনেটর হিতেশ দেবশর্মা গত মে মাসে ওই তালিকা ফের যাচাই করার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

এনআরসি ছুটদের ” প্রত্যাখ্যান স্লিপ’ জারি করতে ‘মিশন মোড’- এ সম্পূর্ণ করা হবে বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনে রেজিস্টার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া (আরজিআই ) এবছরের ২৩ মার্চ অসম সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে। জাতীয় একটি সংবাদ গোষ্ঠী দাখিল করা আর টি আইয়ের জবাবে এনারসির স্টেট কোর্ডিনেটর জানিয়েছেন ,নাগরিকত্ব বিধির অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ডিভি /ডিএফ /পিএফটি /ডিভিডি/ডিএফডি /পিএফটিডি শ্রেণীর ১০৩২ টি মামলা সংশ্লিষ্ট জেলাশাসকের কাছে প্রেরণ করা হয়েছে।

<

p style=”text-align: justify;”>উল্লেখিত বিষয়টি সন্দেহভাজন ভোটারের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়।অর্থাৎ ঘোষিত বিদেশি ,এফটি কোর্টে ডি ভোটারের বংশধর ,ঘোষিত বিদেশির বংশধর ,বিচারাধীন ঘোষিত বিদেশির বংশধর এই শ্রেণীতে পরে। তবে এন আর সি ছুটদের এখনো রিজেকশন স্লিপ জারি করা হয়নি বলেও আর টি আই- এ উল্লেখ করা হয়।