6.3 C
London
Tuesday, November 29, 2022
Homeদেশের দশদিকএই প্রথম হাইকোর্টের বিচারপতি হতে চলেছেন কোন সমকামী

Latest Posts

এই প্রথম হাইকোর্টের বিচারপতি হতে চলেছেন কোন সমকামী

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়ামের সুপারিশে এই প্রথম কোনও সমকামী আইনজীবী হাইকোর্টের বিচারপতি হতে চলেছেন। দেশের প্রধান বিচারপতি এনভি রামান্নার (nv ramanna) নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম সিনিয়র অ্যাডভোকেট সৌরভ কৃপালের নাম দিল্লি হাইকোর্টের (delhi high court) বিচারপতি হিসেবে সুপারিশ করেছে।

চলতি মাসের ১১ তারিখে কলেজিয়ামের বৈঠকে সৌরভ কৃপালের নাম দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি হিসেবে চূড়ান্ত করা হয়। প্রধান বিচারপতি ছাড়াও কলেজিয়ামে রয়েছেন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত এবং বিচারপতি এ এম খানউইলকর।

- Advertisement -

কেন্দ্র যদি কলেজিয়ামের সুপারিশ মেনে নেয় তাহলে সৌরভই (sourav kripal) হবেন দেশের প্রথম ঘোষিত সমকামী বিচারপতি। আইনজীবী মহলে সৌরভ প্রকাশ্যেই নিজেকে সমকামী বলে ঘোষণা করেছেন। উল্লেখ্য, প্রায় তিন বছর আগেই ২০১৮ সালে সৌরভের নাম বিচারপতি পদের জন্য সুপারিশ করেছিল কলেজিয়াম। কিন্তু সে সময় সেই সুপারিশ মেনে নেওয়া হয়নি।

saurabh kirpal

সে সময় বলা হয়, আইনজীবী সৌরভের এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু ইউরোপীয় এবং তিনি সুইজারল্যান্ড দূতাবাসে কর্মরত। ২০২০-র ফেব্রুয়ারি মাসে তৎকালীন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদকে (ravishankar prasad) চিঠি দিয়ে সৌরভের সম্পর্কে গোয়েন্দাদের দেওয়া তথ্যের বিস্তারিত ব্যাখ্যা চেয়ে ছিলেন তৎকালীন প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে (s a bobdey)। সে সময় কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, সৌরভের বন্ধু একজন বিদেশি। তাই তাঁর নাম মেনে নিতে কিছু সমস্যা রয়েছে। আইনজীবী মহল অবশ্য মনে করছে, সৌরভ যেহেতু নিজেকে প্রকাশ্যেই সমকামী বলে ঘোষণা করেছেন সে কারণেই কেন্দ্র তাঁকে বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ করতে গড়িমসি করছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৭ সালে তৎকালীন প্রধান বিচারপতি গীতা মিত্তালের (gita mittal) নেতৃত্বাধীন কলেজিয়ামও বিচারপতি হিসেবে সৌরভের নাম সুপারিশ করেছিল। ইতিমধ্যেই ২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ নম্বর ধারাটি খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। ৩৭৭ ধারায় সমকামকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হত। যে মামলায় শীর্ষ আদালত ওই রায় দিয়েছিল তার অন্যতম আইনজীবী ছিলেন সৌরভ কৃপাল। এর আগে ২০১৯ সালের জানুয়ারি এবং এপ্রিলে এবং ২০২০-র অগাস্ট মাসে কৃপালকে বিচারপতি হিসেবে নিয়োগের সিদ্ধান্ত স্থগিত রেখেছিল কলেজিয়াম। তবে ২০১৯ সালের ১৯ মার্চ দিল্লি হাইকোর্টের ৩১ জন বিচারপতি সর্বসম্মতিক্রমে সৌরভকে সিনিয়র অ্যাডভোকেট হিসেবে পদোন্নতিতে সায় দিয়েছিলেন।

<

p style=”text-align: justify;”>উল্লেখ্য, অক্সফোর্ড এবং কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন নিয়ে পড়াশোনা করেছেন সৌরভ। তাঁর বাবা বি এন কৃপাল একসময় ভারতের প্রধান বিচারপতি (chief justice) ছিলেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss