DRDO: সুপারসনিক টর্পেডো স্মার্ট মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ করল ডিআরডিও

390
DRDO successfully launches supersonic torpedo smart missile

নিউজ ডেস্ক: চিন ও পাকিস্তানের উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে সোমবার সুপারসনিক মিসাইল (Supersonic Missile Assisted Torpedo System) ‘অ্যাসিসটেড টর্পেডো স্মার্টে’র সফল উৎক্ষেপণ করল ভারত (India)। জানা গিয়েছে, নেক্সট জেনারেশন (next generation) প্রযুক্তিতে তৈরি এই অত্যাধুনিক স্মার্ট টর্পেডো মিসাইল সিস্টেমটি সোমবার ওড়িশার হুইলার দ্বীপে (Odisha cost) সফল উৎক্ষেপণ করে ডিআরডিও (DRDO)।

এদিন ডিআরডিওর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই ক্ষেপণাস্ত্রটি সর্বোচ্চ পাল্লার সফল উৎক্ষেপণ হয়েছে আজ। প্রচলিত মিসাইলগুলির থেকে এই অত্যাধুনিক স্মার্ট টর্পেডো মিসাইলটি অনেক দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারবে। জলপথে যুদ্ধের জন্য টর্পেডো বহনকারী মিসাইলটি বিশেষ ভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে। নেক্সট জেনারেশন স্মাট টর্পেডো সিস্টেম এই মিসাইলটি ডিআরডিও সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি করেছে। খুব শীঘ্রই এই মিসাইলটি সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে।

এই অত্যাধুনিক মিসাইল হাতে পেলে দেশের নৌসেনার শক্তি যে এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়বে তা না বললেও চলে। সম্প্রতি দক্ষিণ চিন সাগরে চিনের আগ্রাসন ক্রমশই বাড়ছে। এরই মধ্যে চিনের দোসর হয়েছে পাকিস্তান। চিনের আগ্রাসন রুখতে নৌসেনার হাতে এ ধরনের অত্যাধুনিক মিসাইল থাকা যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ বলে প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

এদিন এই মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণের পর ডিআরডিওর প্রত্যেক বিজ্ঞানীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে পোখরানে পিনাকা রকেট লঞ্চার সিস্টেমেরও সফল উৎক্ষেপণ করেছে ডিআরডিও। চলতি বছরেই অগ্নি-৫ ব্যালিস্টিক মিসাইলেরও সফল পরীক্ষা করেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

অগ্নি-৫ প্রায় ৫ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে নির্ভুলভাবে আঘাত হানতে সক্ষম। বলা যায় এই মুহূর্তে চিনের অধিকাংশ এলাকাই চলে এসেছে অগ্নির পাল্লার মধ্যে। সর্বোপরি অগ্নি-৫ পারমাণবিক অস্ত্র বহনেও সক্ষম। অগ্নি-৫ সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি করেছে ডিআরডিও।