7 C
London
Saturday, December 3, 2022
Homeদেশের দশদিকইডি, সিবিআই প্রধানের পর এবার ‘আইবি’ ও ‘র’-এর শীর্ষকর্তারও মেয়াদ বাড়ছে

Latest Posts

ইডি, সিবিআই প্রধানের পর এবার ‘আইবি’ ও ‘র’-এর শীর্ষকর্তারও মেয়াদ বাড়ছে

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: সিবিআই (CBI), ইডি-র (ED) পরে এবার মেয়াদ বাড়তে চলেছে প্রতিরক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, RAW র প্রধান ও আইবি (IB) প্রধানের। এই বিষয়ে রীতিমতো আইন সংশোধনের পথে হাঁটল কেন্দ্র।

নতুন আইনে দেশের প্রতিরক্ষার দায়িত্বে থাকা বিভিন্ন দফতরের কর্তাদের ২ বছর করে মেয়াদ বাড়তে চলেছে। সোমবার এ বিষযে একটি নির্দেশিকা জারি করে কেন্দ্র। ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, গুরুত্বপূর্ণ কারণে ও নির্দিষ্ট প্রয়োজনে নতুন আইনে প্রতিরক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, র প্রধান ও আইবি প্রধানের মেয়াদ বাড়ানো যেতে পারে। সেই মেয়াদ আরও ২ বছর পর্যন্ত বাড়তে পারে। এই নির্দেশিকায় এটা স্পষ্ট যে, ইডি ও সিবিআইয়ের মতোই প্রতিরক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, র প্রধান ও আইবি প্রধানের মেয়াদ বাড়াতে চলেছে কেন্দ্র।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: সিবিআই ও ইডির শীর্ষ আধিকারিকদের চাকরির মেয়াদ বাড়ল

D Director Sanjay Kumar Mishra

সোমবারই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ইডি ও সিবিআই প্রধানের কাজের মেয়াদ ২ বছর থেকে বাড়িয়ে ৫ বছর করার প্রস্তাবে লিখিত অনুমতি দিয়েছেন। রবিবার কেন্দ্রের তরফে জারি করা অধ্যাদেশে জানানো হয়েছিল, সিবিআই এবং ইডির আধিকারিকদের নির্ধারিত দু’বছরের মেয়াদ শেষে তা আরও একবছর করে তিনবার বাড়ানো যেতে পারে। তবে, ওই দুই তদন্তকারী সংস্থার শীর্ষপদে কেউ পাঁচ বছর পূরণ করে ফেললে আর তা বাড়ানো হবে না। শুধুমাত্র জনস্বার্থে ইডি এবং সিবিআইয়ের শীর্ষ আধিকারিকদের মেয়াদ বাড়ানো যেতে পারে। পাশাপাশি কেন মেয়াদ বাড়ানো হল, তা লিখিতভাবে জানাতে হবে।

প্রতিরক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, র প্রধান ও আইবি প্রধানের মেয়াদ বাড়ানোর নির্দেশিকাতেও প্রায় একই ধরনের দাবি করা হয়েছে। তথ্যভিজ্ঞ মহল মনে করছে, সিবিআই ও ইডির প্রধানের পর দেশের প্রতিরক্ষার দায়িত্বে থাকা অধিকাংশ কর্তার মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযোগ তোলার সুযোগ পাবে বিরোধীরা।

<

p style=”text-align: justify;”>বিরোধীদের দীর্ঘ দিনের অভিযোগ, ইডি, সিবিআইয়ের মতো তদন্তকারী সংস্থাগুলিকে রাজনৈতিক উদ্দেশে ব্যবহার করছে মোদি সরকার। বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থাকে কাজে লাগিয়ে বিরোধীদের হেনস্তা করাই একমাত্র লক্ষ্য মোদি সরকারের। বিরোধীদের তোলা এই গুরুতর অভিযোগের পরেও ফের অধ্যাদেশ জারি করে প্রতিরক্ষার দায়িত্বে থাকা কর্তাদের মেয়াদ বৃদ্ধি বিরোধীদের হাতে নতুন অস্ত্র তুলে দেবে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss