8.8 C
London
Saturday, February 4, 2023
Homeদেশের দশদিকKarnataka: শিক্ষককে ডাস্টবিন দিয়ে পেটাচ্ছে ছাত্ররা, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

Latest Posts

Karnataka: শিক্ষককে ডাস্টবিন দিয়ে পেটাচ্ছে ছাত্ররা, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক: ক্লাস চলাকালীন এক শিক্ষককে (teacher) মারধর করছে পাঁচ ছাত্র। চেয়ারে বসে থাকা ওই শিক্ষককে ডাস্টবিন দিয়ে পেটাচ্ছে তারা। চাঞ্চল্যকর ওই ঘটনাটির ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিষয়টি সামনে এসেছে। নেটিজেনরা প্রায় সকলেই ওই ছাত্রদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছে। কর্নাটকের নেল্লোরের (Karnataka) এক সরকারি স্কুলে এই ঘটনাটি ঘটেছে। শুক্রবার ওই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) ছড়িয়ে পড়ে।

ওই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, প্রকাশ নামে এক শিক্ষককে ক্লাস রুমে ঢোকার শুরু থেকেই তীব্র হেনস্তা করছে পাঁচ ছাত্র। ওই শিক্ষক যখন তাঁর চেয়ারে গিয়ে বসেন তখন এক ছাত্র তাঁকে ডাস্টবিন তুলে মারতে যায়। এরপর ওই শিক্ষক যখন ক্লাসে পড়ানো শুরু করেন তখন এক ছাত্র আচমকাই গিয়ে ডাস্টবিনটি ওই শিক্ষকের মাথায় চাপিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ওই স্কুলের অন্যান্য অভিভাবক ও গ্রামবাসীরা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সকলেই ওই ছাত্রদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি তুলেছেন। কিন্তু প্রশ্ন হল কেন ওই শিক্ষকের উপর চড়াও হল ছাত্ররা।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, ৩ নভেম্বর প্রকাশ নামে ওই শিক্ষক ছাত্রদের বকাঝকা করেছিলেন। কারণ ক্লাসরুমে বেশ কিছু খালি গুটখার প্যাকেট পড়েছিল। ছাত্রদের প্রকাশ বলেছিলেন, এভাবে কখনওই ক্লাসরুম নোংরা করা উচিত নয়। প্রত্যেকের উচিত নিয়ম মেনে চলা। ক্লাসের মধ্যে গুটকা খাওয়া অত্যন্ত লজ্জাজনক ঘটনা।

প্রকাশ জানিয়েছেন বকুনি দেওয়ার কারণেই তাঁকে ৫ ছাত্রের হাতে আক্রান্ত হতে হয়েছে। কেন তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ জানাননি? এই প্রশ্নের জবাবে ওই শিক্ষক বলেছেন, পুলিশে অভিযোগ জানালে ওই ছাত্ররা তাঁর উপর আরও বড় ধরনের হামলা করতে পারত। সেই আশঙ্কায় তিনি পুলিশকে বিষয়টি জানাননি।

তবে বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর ওই স্কুলে যান স্থানীয় বিধায়ক মাদল বিরুপাক্ষাপ্পা। বিধায়কের সঙ্গে ছিলেন জেলা প্রশাসনের শিক্ষা দফতরের এক আধিকারিক। স্কুলে গিয়ে তাঁরা শিক্ষকদের কাছ থেকে বিষয়টি জানেন। তবে পড়ুয়াদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যদিও ওই ছাত্রদের লিখিতভাবে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হয়েছে। ভবিষ্যতে তারা এ ধরনের আচরণ করবে না, তার লিখিত প্রতিশ্রুতি দিতে বলা হয়েছে। তবে অন্য অভিভাবকদের দাবি, ওই ছাত্রদের অবিলম্বে স্কুল থেকে বরখাস্ত করতে হবে। তাদের কড়া শাস্তি দেওয়া না হলে ভবিষ্যতে তাদের আচরণ পাল্টাবে না। সহকারি জেলাশাসক মহান্তেশ বিলাগী জানিয়েছেন, তিনি ঘটনাটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss