6.8 C
London
Wednesday, November 30, 2022
Homeদেশের দশদিকগঙ্গায় ডুব দিয়ে মোদী বললেন, বিশ্বনাথের ইচ্ছা ছাড়া বেনারসে একটা পাতাও নড়ে...

Latest Posts

গঙ্গায় ডুব দিয়ে মোদী বললেন, বিশ্বনাথের ইচ্ছা ছাড়া বেনারসে একটা পাতাও নড়ে না

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক, বারানসী: নরেন্দ্র মোদী মানেই নতুন কোনও চমক। সোমবার দুপুরে মোদীর লোকসভা কেন্দ্র বারাণসীর (benaras)মানুষ এমনই এক চমকের সাক্ষী হলেন। এদিন বেনারসে কাশী বিশ্বনাথ করিডোরের (kashi viswanath coridor) উদ্বোধন করতে আসেন প্রধানমন্ত্রী। উদ্বোধনের আগে গঙ্গায় (ganga) ডুব দিয়ে সকলকেই চমকে দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

কাশী বিশ্বনাথ মন্দির (biswanath temple) থেকে গঙ্গার তির পর্যন্ত যাওয়ার পথে যে সমস্ত মন্দির রয়েছে সেগুলিকে নতুন করে সারিয়ে এবং সাজিয়ে তোলা হয়েছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে কাশী বিশ্বনাথ করিডোর।

- Advertisement -

আগামী বছরের শুরুতেই উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন। এই রাজ্যে হিন্দু ভোট একটা বড় ফ্যাক্টর। সেই ভোট বিজেপির বাক্সে আনতে চেষ্টার কসুর করছেন না মোদী। সেই লক্ষ্যেই এদিন তাঁর গঙ্গায় ডুব দেওয়া বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। নির্ধারিত সময়ের এক ঘন্টা আগেই ১১টা নাগাদ মন্দির শহর বেনারসে পৌঁছন প্রধানমন্ত্রী। প্রথমে প্রধানমন্ত্রী যান কালভৈরব মন্দিরে। সেখানে মন্দিরে আরতি করার পর দেবতার উদ্দেশ্যে প্রণাম সারেন। সাড়ে ১১টা নাগাদ প্রধানমন্ত্রী পৌঁছন খিড়কিয়া ঘাটে।

তাঁর সঙ্গে ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে কাশী বিশ্বনাথের মন্দিরে পুজো দিতে ঢোকেন বেলা ১২ টায়। পূজো দেওয়ার আগে মোদী গঙ্গায় ডুব দেন। তাঁর পরনে ছিল লাল পট্টবস্ত্র। এদিন গোটা দুনিয়া দেখল, দেশের প্রধানমন্ত্রী গঙ্গায় ডুব দিয়ে পুজোর ঘট মাথায় নিয়ে উঠছেন। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদীর গঙ্গায় ডুব দেওয়ার ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। গঙ্গায় ডুব দেওয়ার পর মোদী বিশ্বনাথের মন্দিরে পুজো দিয়ে আরতি করেন। বিশ্বনাথ মন্দিরে প্রায় একঘন্টা সময় কাটান মোদী।

সোমবার সন্ধ্যায় বেনারসে গঙ্গা- আরতি দেখতেও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন তিনি নিজের হাতে গঙ্গারতিও করেন।

মোদীর সঙ্গে এদিন কাশী বিশ্বনাথ মন্দির করিডোর উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন দেশের বিজেপি শাসিত ১২টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। বিহার ও নাগাল্যান্ডের উপমুখ্যমন্ত্রীরাও হাজির ছিলেন। এদিনের অনুষ্ঠানে প্রায় ৩০০০ বিশিষ্ট অতিথি উপস্থিত ছিলেন। মোদীর সফর ঘিরে বেনারস কার্যত দুর্গের চেহারা নেয়। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে এই কাশী বিশ্বনাথ করিডোর প্রকল্পের শিলান্যাস করেছিল মোদী। গঙ্গার পাড় থেকে বিশ্বনাথ মন্দির পর্যন্ত পাঁচ লক্ষ বর্গফুট এলাকা সাজিয়ে তোলা হয়েছে। এই প্রকল্পে ব্যয় হয়েছে ৩৩৯ কোটি টাকা।

এই করিডোর উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে বলেন, কাশিতে একজনের সরকার। তিনি হলেন মহাদেব। তাঁর ইচ্ছাতেই এই করিডোর তৈরি হয়েছে। এদিন করিডোর উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী যে হিন্দু ভোটব্যাংককে পাশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন তা তিনি প্রতিটি পদক্ষেপেই বুঝিয়ে দিয়েছেন। গঙ্গায় তিনি যখন ডুব দেন তখন তাঁর পরনে ছিল লাল রঙের পাঞ্জাবি। পুজো দেওয়ার পর তিনি যখন ভাষণ দিতে মঞ্চে ওঠেন তখন তাঁর গায়েছিল তসরের পাঞ্জাবি। কপালে ছিল চন্দনের তিলক। বিরোধীদের অভিযোগ, হিন্দু ভোট পেতে মরিয়া মোদী দ্রুত কাশি বিশ্বনাথ করিডোর উদ্বোধন করলেন। এখনও এই প্রকল্পের কাজ শেষ হতে অনেকটাই বাকি।

এদিন বিরোধীদেরও তোপ দেখেছেন প্রধানমন্ত্রী। মোদী বলেন, যারা এই প্রকল্পে রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছেন তাদের জানিয়ে রাখি আপনারা ভুল করছেন। কাশিতে একটা মানুষের সরকার, তিনি হলেন ডমরুধর। বিশ্বনাথের ইচ্ছাতেই এই করিডোর তৈরি হয়েছে। বিশ্বনাথের ইচ্ছা ছাড়া এখানে একটি পাতাও নড়ে না। তাই আমি নয়, আমার দল নয়, এই করিডোর তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বয়ং বাবা বিশ্বনাথ। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর দাবি, আজ থেকে আড়াইশো বছর আগে শেষবার কাশীর সংস্কার হয়েছিল। তারপর তাঁর সরকারই প্রথম কাশির সংস্কার ও উন্নয়নের কাজ করল। করোনাজনিত পরিস্থিতিতেও যেভাবে বেনারসের উন্নয়নের কাজ হয়েছে তার জন্য তিনি এলাকার প্রত্যেক মানুষকে ধন্যবাদ জানান। ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এই প্রকল্পের নির্মাণ কর্মীদের। নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত থাকা শ্রমিকদের মাথায় তিনি পুষ্পবৃষ্টিও করেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss