8.4 C
London
Sunday, February 5, 2023
Homeদেশের দশদিকরাশিয়া থেকে আসা এস-৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম মোতায়েন হল পাঞ্জাব সীমান্তে

Latest Posts

রাশিয়া থেকে আসা এস-৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম মোতায়েন হল পাঞ্জাব সীমান্তে

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: কিছুদিন আগেই দেশের বায়ুসেনার হাতে এসেছে এস -৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম। এই অত্যাধুনিক মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম মোতায়েন করা হল পাঞ্জাব সীমান্তে। এই অত্যাধুনিক মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম প্রতিপক্ষের যে কোনও ধরনের মিসাইল এবং যুদ্ধবিমানকে আকাশেই ধ্বংস করে দিতে পারে।

সম্প্রতি সীমান্তে চিনের আগ্রাসন বেড়েছে। চিনের (chin) দোসর হয়েছে পাকিস্তান। পাক সীমান্তে জঙ্গিদের (terrorist) অনুপ্রবেশও বেড়েছে। এই অবস্থায় দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও মজবুত করতে উদ্যোগী হয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। সেই লক্ষ্যেই ভারত-পাকিস্তান (pakistan) সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় মোতায়েন করা হল এস-৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম (missile defence system)।

- Advertisement -

মঙ্গলবার এক শীর্ষ সেনা আধিকারিক জানিয়েছেন, এস-৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেমের প্রথম স্কোয়াড্রনটি পাঞ্জাব (punjab sector) সেক্টরে মোতায়েন করা হচ্ছে। পাকিস্তান ও চিনের দিক থেকে সম্ভাব্য বিপদের মোকাবিলা করতে পাঞ্জাব সীমান্তে এই মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই এই মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম কাজ শুরু করবে।

উল্লেখ্য, ভারত এই অত্যাধুনিক মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম কেনার জন্য রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তি করেছিল। সেই চুক্তিমতো চলতি মাসের শুরুর দিকে এই মিসাইল ভারতের হাতে আসতে শুরু করেছে। রাশিয়া থেকে বিমান ও সমুদ্র উভয় পথেই মিসাইলের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ আসতে শুরু করেছে। ভারতে সেগুলিকে একসঙ্গে করে এই অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধকারী অস্ত্রটি গড়ে তোলা হচ্ছে। আশা করা যায়, আগামী বছরের প্রথম দিকের মধ্যেই চুক্তিমতো বেশিরভাগ এস-৪০০ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম ভারতের হাতে চলে আসবে।

এর আগে রাশিয়া ভূমি থেকে আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মিসাইল সিস্টেম এস-৪০০ ট্রায়াম্প ভারতে পাঠিয়েছে। সামরিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে আসার ফলে তাদের শক্তি এক ধাক্কায় অনেকটাই বেড়েছে। কারণ যে কোনও যুদ্ধবিমান ও দূরপাল্লার ক্রুজ মিসাইলের মোকাবিলা করতে এস-৪০০ মিসাইলের কোনও বিকল্প নেই। সম্প্রতি অরুণাচল ও লাদাখ সীমান্তে চিন আগ্রাসন বাড়িয়েছে। এহেন পরিস্থিতিতে ভারতের হাতে এই অত্যাধুনিক মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম এসে পৌঁছনকে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সামরিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, চিন ও পাকিস্তান দুই দেশকে চাপে রাখতেই পাঞ্জাব সীমান্তে বায়ুসেনা এই ডিফেন্স মিসাইল সিস্টেম মোতায়েন করছে।

ভারতের এই অত্যাধুনিক মিসাইল কেনা নিয়ে অবশ্য তৈরি হয়েছে বিতর্ক। কারণ রাশিয়ার কাছ থেকে এ ধরনের আধুনিক যুদ্ধাস্ত্র কেনার বিষয়টি আমেরিকা একেবারেই পছন্দ করছে না। যে কারণে ভারতের উপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞা চাপানোর হুমকিও দিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে আমেরিকার এই হুমকিকে সেভাবে পাত্তা দিচ্ছে না দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss