6.8 C
London
Wednesday, November 30, 2022
Homeদেশের দশদিকসফল‌ভাবে পরীক্ষা করা হল সারফেস টু সারফেস ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র 'প্রলয়'

Latest Posts

সফল‌ভাবে পরীক্ষা করা হল সারফেস টু সারফেস ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ‘প্রলয়’

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক: ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশনের তরফ আজ থেকে সারফেস টু সারফেস ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রলয় সফলভাবে পরীক্ষা করা হল। ওড়িশা উপকূলে এই পরীক্ষা করা হয়েছে। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি সফলভাবে সমস্ত উদ্দেশ্য এবং এটি তৈরির লক্ষ্যমাত্রাকে স্পর্শ করেছে। DRDO এর তরফ থেকে টুইট করে প্রলয় ক্ষেপণাস্ত্রের সফলভাবে পরীক্ষার কথা জানিয়েছেন আধিকারিকরা। অত্যাধুনিক সারফেস টু সার্ভিস ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল ভাবে উৎক্ষেপণে উচ্ছ্বসিত DRDO এর কর্মকর্তা থেকে শুরু করে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

‘প্রলয়’ একটি আধা ব্যালিস্টিক সারফেস টু সারফেস মিসাইল। এমনভাবে উন্নত ক্ষেপণাস্ত্রটি তৈরি করা হয়েছে যা ইন্টারসেপ্টর মিসাইলকে পরাস্ত করতে সক্ষম। মধ্যবায়ুতে একটি নির্দিষ্ট পরিসীমায় লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করে নিজের পথ পরিবর্তন করার ক্ষমতা আছে এই মিসাইলের। প্রলয় ১৫০ কিলোমিটার থেকে ৫০০ মিটার পর্যন্ত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। ক্ষেপণাস্ত্রটি কঠিন প্রপেলান্ট রকেট মোটর দ্বারা চালিত এবং এর মধ্যে একাধিক নতুন প্রযুক্তি রয়েছে‌। একাধিক উন্নত প্রযুক্তির ক্ষেপণাস্ত্রটি আধা ব্যালিস্টিক ট্র্যাজেক্টোরি অনুসরণ করে উচ্চ মাত্রার নির্ভুলতা,নিয়ন্ত্রণ, নির্দেশিকা এবং মিশন অ্যালগরিদমগুলিকে বৈধ করে নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌঁছেছে।

- Advertisement -

DRDO তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সমস্ত সাব-সিস্টেম সন্তোষজনকভাবে সঞ্চালিত হয়েছে। সমস্ত সেন্সর পূর্ব উপকূল জুড়ে ইমপ্যাক্ট পয়েন্টের কাছাকাছি মোতায়েন করা হয়েছে, ডাউনরেঞ্জ জাহাজ সহ, ক্ষেপণাস্ত্রের গতিপথ ট্র্যাক করা হয়েছে এবং সমস্ত ঘটনা ক্যাপচার করা হয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটি ১৫০-৫০০ কিমি রেঞ্জ বিশিষ্ট হলেও এটি একটি মোবাইল লঞ্চার থেকে উৎক্ষেপণ করা যায়। এর মিসাইল গাইডেন্স সিস্টেমের মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক নেভিগেশন সিস্টেম এবং ইন্টিগ্রেটেড এভিওনিক্স।

DD R&D সেক্রেটারি এবং DRDO চেয়ারম্যান ডঃ জি সতীশ রেড্ডি প্রলয় ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে নিযুক্ত দলের প্রশংসা করে বলেছেন, এই ক্ষেপণাস্ত্রটি একটি নতুন প্রজন্মের সারফেস-টু-সারফেস ক্ষেপণাস্ত্র যা আধুনিক প্রযুক্তিতে সজ্জিত এবং এই অস্ত্র ব্যবস্থার অন্তর্ভুক্তি সশস্ত্র বাহিনীকে প্রয়োজনীয় গতি দেবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এই প্রথম ডেভেলপমেন্ট ফ্লাইট ট্রায়ালের জন্য DRDO এবং সংশ্লিষ্ট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি দ্রুত ট্র্যাক উন্নয়ন এবং আধুনিক সারফেস-টু-সারফেস মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণের জন্য ডিআরডিওর প্রশংসা করেছেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss