""
Sunday, October 2, 2022
Homeদেশের দশদিকFarm Laws Repeal Bill: রাজ্যসভাতেও ধ্বনি ভোটে পাস হয়ে গেল কৃষি আইন...

Latest Posts

Farm Laws Repeal Bill: রাজ্যসভাতেও ধ্বনি ভোটে পাস হয়ে গেল কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল

- Advertisement -

News Desk, New Delhi: শেষ পর্যন্ত লোকসভার মতই রাজ্যসভাতেও (Rajya Sabha) সোমবারই পাস হয়ে গেল কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল (Farm Laws Repeal Bill)। সোমবার সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের (winter season) প্রথম দিনেই সংসদের উভয় কক্ষে কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাস হল।

বিরোধীরা এই বিল নিয়ে আলোচনার দাবি জানালেও সরকার সেই দাবি উড়িয়ে দিয়ে সংসদের উভয় কক্ষেই ধ্বনী ভোটে (voice vote) এই বিল পাশ করিয়ে নেয়। ঘটনার জেরে বিরোধীরা রাজ্যসভাতেও তুমুল হই হট্টগোল করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। তাই কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাস হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই রাজ্য সভার অধিবেশন স্থগিত করে দেওয়া হয়।

- Advertisement -

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চলতি মাসের ১৯ তারিখে ঘোষণা করেছিলেন, কৃষি আইন প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। কৃষকদের দাবি মেনেই সরকার এই আইন প্রত্যাহার করবে। এই আইনের জন্য তিনি দেশবাসীর কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন।

অন্যদিকে বিরোধীদের দাবি ছিল, কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাস করার আগে তা নিয়ে সংসদে আলোচনা করা হোক। এদিন রাজ্যসভাতেও কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পেশ করেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। বিল পাস হওয়ার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা নিয়ে আলোচনার দাবি জানাতে থাকেন বিরোধীরা। বিল নিয়ে আলোচনার দাবিতে বিরোধীরা যখন চিৎকার চেঁচামেচি করছেন সে সময়ে সরকার ধ্বনী ভোটে বিলটি পাস করিয়ে নেয়। সংসদের উভয় কক্ষেই কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাস হয়ে যাওয়ায় আইন প্রত্যাহারের কাজটি একপ্রকার সম্পন্ন হল বলা যায়।

কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে বলেন, “আমরা সরকারের কাছে ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নিশ্চয়তা আইন নিয়ে কথা বলতে চেয়েছিলাম। যে সমস্ত কৃষক আন্দোলন করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন তাঁদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও বলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সরকার আমাদের কোনও কথা বলার সুযোগ দিল না। বিরোধীদের হই হট্টগোলের কারণে লোকসভার অধিবেশন মঙ্গলবার সকাল ১১টা পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়েছে। কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল রাজ্যসভায় পাস হওয়ার পর কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী বলেন, আমরা অনেক আগেই সরকারকে এই বিতর্কিত আইন প্রত্যাহার করার জন্য অনুরোধ করেছিলাম। আজ সেই আইন প্রত্যাহার করা হল।

তবে এটা খুবই দুঃখের যে, সরকার আইন বাতিল নিয়ে কোনও আলোচনা করল না। আসলে মোদি সরকার আলোচনা করতে ভয় পায়। এই সরকার কৃষকদের সামনে দাঁড়াতে ভয় পাচ্ছে। তবে সরকার যে কৃষকদের কথা ভেবে আইন প্রত্যাহার করেছে তা নয়। বরং সরকারের মাথায় রয়েছে আগামী বছরের শুরুতেই পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। ভোটে জেতার লক্ষ্যেই মোদি সরকার তড়িঘড়ি আইন প্রত্যাহারের রাস্তায় হেঁটেছে।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss