""
Sunday, October 2, 2022
Homeদেশের দশদিকTripura: সুপ্রিম 'নিরাপত্তা নির্দেশ' উড়িয়ে হামলা, আক্রান্ত সরকারি কর্মী,অভিযুক্ত BJP

Latest Posts

Tripura: সুপ্রিম ‘নিরাপত্তা নির্দেশ’ উড়িয়ে হামলা, আক্রান্ত সরকারি কর্মী,অভিযুক্ত BJP

মূল লড়াইয়ে শাসক BJP বনাম বিরোধী CPIM

- Advertisement -

News Desk: পুর নির্বাচনের আগেই ‘ভয়াবহ রাজনৈতিক সন্ত্রাস’ চলছে এমনই অভিযোগের ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, পুর নির্বাচনে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে ত্রিপুরা (Tripura) রাজ্য সরকারকে। সেই নির্দেশের পরেও আগরতলা পুর নিগমের ভোটে লাগামছাড়া সন্ত্রাস চালানোর অভিযোগ উঠছে শাসক বিজেপির বিরুদ্ধে। আরও অভিযোগ, খোদ মু়খ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব চোখ বন্ধ করে বসে আছেন।

আগরতলা পুর নিগম, ১৩টি পৌর পরিষদ ও ৬টি নগর পঞ্চায়েতের ভোট হবে আগামী ২৫ নভেম্বর। নির্বাচনে রাজনৈতিক হামলার অভিযোগ করছে প্রধান বিরোধী সিপিআইএম। এছাড়াও টিএমসি ও কংগ্রেসের লাগাতার অভিযোগ চলছেই। নির্বাচনে শতাধিক আসনে বিরোধীদের কোনও প্রার্থী নেই।

- Advertisement -

tripura

এবার রাজনৈতিক হামলার শিকার হলেন এক রাজ্য সরকারি কর্মী। হামলায় তাঁর চোখ ক্ষতিগ্রস্থ। আক্রান্ত ওই সরকারি কর্মীর অভিযোগ, তাঁকে মারধর করেছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতিরা। তিনি কোনও দলের কর্মী নন বলেই জানান।

আসন্ন পুর নির্বাচনের মুখে রাজধানী আগরতলা পুরনিগমের ভোট ঘিরে শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে হামলা চলছে শাসক দলের আশ্রিত দুষ্কৃতিদের। বিরোধী দল সিপিআইএমের তরফে পশ্চিম ত্রিপুরা থানা ঘেরাও করা হয়। থানায় ঢুকে বাম নেতারা পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ এনে তীব্র ক্ষোভ দেখান।

পশ্চিম ত্রিপুরা থানায় সিপিআইএম নেতৃত্ব ও অফিসারদের কথা কাটাকাটির মাঝে বাম নেতা বলেন “এ পর্যন্ত ক’জন সমাজদ্রোহীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ?” তাঁর প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি পুলিশ অফিসার।

tripura

বিরোধী দলনেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার জানিয়েছেন, বিজেপি সরকার জনসমর্থন হারিয়ে রাজনৈতিক হামলার পথ নিয়েছে। জনতার জবাব পাবে।

অন্যদিকে লাগাতার হামলার অভিযোগ করে তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব সুপ্রিম কোর্টের দরজায় গিয়েছিলেন। তাঁর আবেদনের ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্ট ত্রিপুরার বিজেপি জোট সরকারকে নির্দেশ দেয় পুর নির্বাচন নির্বিঘ্নে করাতে হবে। তবে সেই নির্দেশ উড়িয়েই বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতিরা হামলা অব্যাহত রেখেছে বলে অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের।

<

p style=”text-align: justify;”>রাজ্যের অপর বিরোধী দল কংগ্রেসও নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করার দাবিতে ঘেরাও অবস্থান করেছে। কংগ্রেস নেতৃত্ব বারবার সরকারের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক সন্ত্রাস ছড়ানোর অভিযোগ করেছেন।

- Advertisement -

Video News

Top News Headlines

Latest Posts

Don't Miss