IPL: আসন্ন আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ চমক দিতে চলেছে

332
Sunrisers Hyderabad IPL cheerleaders

Sports desk: আইপিএলে (IPL) সানরাইজার্স হায়দরাবাদ রশিদ খান, পাঞ্জাব কিংস ইলেভেনের কেএল রাহুল এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হার্দিক পান্ডিয়াকে পরবর্তী তিন মরসুমের জন্য ধরে রাখেনি। মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় ধরে রাখার সময়সীমা শেষ হয়েছে।

সানরাইজার্স দুই অনবদ্য প্রতিভাবান তরুণকে ধরে রেখেছে, জম্মু ও কাশ্মীরের ফাস্ট বোলার ওমরান মালিক এবং মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আবদুল সামাদকে।

টি টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে সেরা স্পিনারদের মধ্যে রশিদ খান সানরাইজার্স হায়দরাবাদ টিমে থাকতে চেয়েছিলেন। ফ্র্যাঞ্চাইজি অবশ্য তাদের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে ১৪ কোটি অর্থে সুযোগ দিয়েছে। অন্যদিকে গত মরসুমে অধিনায়কত্ব নিয়ে মতপার্থক্যের জেরে ডেভিড ওয়ার্নারকে ধরে রাখা হবে না বলে জানা গিয়েছে।

স্পিনার রশিদ খান এবং ব্যাটসম্যান কে এল রাহুল দুজনেই লক্ষৌ ফ্র্যাঞ্চাইজির রাডারে রয়েছে, এই ফ্র্যাঞ্চাইজি টিম আইপিএল ২০২২ সংস্করণে প্রথমবারের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামবে। রাহুল এখনও নামহীন ফ্র্যাঞ্চাইজির নেতৃত্ব দেবেন বলে জানা গিয়েছে, যা কিনা সঞ্জীব গোয়েঙ্কার RPSG ভেঞ্চারস লিমিটেডের মালিকানাধীন।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স রোহিত শর্মা, জসপ্রিত বুমরাহ এবং কাইরন পোলার্ডের পাশাপাশি সূর্যকুমার যাদব ফ্রাঞ্চাইজির পচ্ছন্দের তালিকায় রয়েছে। হার্দিক পান্ডিয়া কিংবা ঈশান কিশান দুজনকেই ধরে রাখা হয়নি। ফ্রাঞ্চাইজির টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে হার্দিক-ঈশান জুটির চাইতে সূর্যকে পছন্দ করা হয়েছে বলে খবর।

হার্দিকের বোলিং নিয়ে অনিশ্চয়তা এখনও কাটেনি, ঈশানের কাছে কাট মিস ব্যাডপ্যাচ। আন্দ্রে রাসেল, বরুণ চক্রবর্তী, ভেঙ্কটেশ আইয়ার এবং সুনীল নারিনকে ধরে রেখে ওপেনার শুভমান গিলকে ছেড়ে দিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ইয়ন মর্গ্যানকেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি তাকে মেগা-নিলামের সময় ফের বাছাই করতে পারে এমন ক্ষীণ সম্ভাবনা বজায় রয়েছে।

দিল্লি ক্যাপিটালস শ্রেয়স আইয়ারকে রাখেনি ঠিকই কিন্তু আইয়ারের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স মেগা-নিলামে শ্রেয়সকে নিয়ে ফ্রাঞ্চাইজিদের মধ্যে চাহিদা থাকবে। তবে শ্রেয়স আইয়ারকে পেতে ফ্রাঞ্চাইজিদের মধ্যে দৌড়ে আপাতত এগিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, আইয়ারকে স্কোয়াডে নিতে ইতিমধ্যেই আগ্রহ দেখিয়েছে বলে খবর।

রাহুল চাহাল পাঞ্জাব কিংস ইলেভেনে না থাকার ইচ্ছে প্রকাশ করায় মায়াঙ্ক আগরওয়াল পচ্ছন্দের তালিকায় সবার ওপড়ে পাঞ্জাব কিংসের। এই সঙ্গে পচ্ছন্দের তালিকায় নাম রয়েছে একটিও ম্যাচ না খেলা আনক্যাপড আরশদীপ সিং। মায়াঙ্ক গত আইপিএলে ওপেনার হিসেবে নিজের জাত দেখিয়েছিলেন এবং ওই পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে ন্যায্য মূল্যের চুক্তি পেয়েছেন মনে করা হচ্ছে। সবকিছু ঠিকঠাক চললে হেডকোচ অনিল কুম্বলে মায়াঙ্কের নামে সিলমোহর দিলে, পাঞ্জাব কিংসের নেতৃত্ব’র দিতে পারেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল।

বিরাট কোহলি এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে আরসিবি সবসময় ধরে রাখবে কিন্তু চমক হল মহম্মদ সিরাজকে নিয়ে। যারা বাদ পড়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন দেবদত্ত পাডিক্কল, হর্ষাল প্যাটেল এবং যুজবেন্দ্র চাহাল।

চেন্নাই সুপার কিংসের সঙ্গে চাহালের আলোচনা ফলপ্রসূ হয়নি, চাহালকে মাত্র 7 কোটি টাকার অফার দেওয়া হয়েছিল। প্রত্যাশিতভাবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস রবীন্দ্র জাদেজা, মহেন্দ্র সিং ধোনি, রুতুরাজ গায়কওয়াড় এবং মঈন আলীকে রেখে ফাফ ডু প্লেসিকে বাদ দিয়ে ধরে রেখেছে। রবীন্দ্র জাদেজা ১৬ কোটির অর্থের মূল্যে রির্জাভ খেলোয়াড়, এম এস ধোনির আগে, এবং ধোনি পদত্যাগ করলে তিনি অধিনায়কের দায়িত্ব নিতে পারেন।

নতুন দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি লক্ষৌ এবং আহমেদাবাদ -এখন অপরিবর্তিত পুল থেকে তিনজন করে খেলোয়াড় বাছাই করতে পারে। নবাগত দুই ফ্রাঞ্চাইজির পছন্দ চূড়ান্ত করার ডেডলাইন ২৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত রয়েছে।