Benefits Of Pineapple: অবাক করা আনারসের গুন

623
pineapple

বলা হয় আনারস (pineapple)দক্ষিণ আমেরিকা থেকে এসেছে এবং পুষ্টি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। যা ভাল হজমে সহায়তা করে এবং আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়। এই ফল আপনার চুল, ত্বক এবং হাড়ের জন্যও খুব ভালো।এতে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম এবং জিংক যা অনেক রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিস্ময়কর কাজ করতে পারে।

ঠান্ডা এবং কাশির চিকিৎসা করে :
যদি আপনি ঠান্ডায় ভুগছেন, তাহলে নিয়মিত আনারস খান। এই ফলের মধ্যে রয়েছে ব্রোমেলেন যা সংক্রমণকারী ব্যাকটেরিয়ার ধ্বংস করতে পারে। এটি নিয়মিত খেলে আপনি সর্দি -কাশি থেকে রক্ষা পাবেন।

হাড় মজবুত করে :

আনারস ম্যাঙ্গানিজ সমৃদ্ধ যা আপনার হাড়কে শক্তিশালী করতে সাহায্য করে। তই দৈনন্দিন খাদ্যে এই ফল যোগ করুন। এটি আপনাকে একটি শক্তিশালী শরীর বজায় রাখতে এবং আপনার হাড়কে শক্তিশালী এবং সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে।ম্যাঙ্গানিজ ভাল হাড়ের শক্তি বজায় রাখে।

দাঁতের জন্য ভালো :
প্রাচীনকাল থেকে মাড়ি মজবুর রাখতে
আনারস খাওয়ার কথা বলা হয়। আপনার দাঁত এবং হাড় ক্যালসিয়াম দিয়ে তৈরি এবং আনারসে ভালো উপাদান রয়েছে ।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে :

আনারস ক্যান্সারকে দূরে রাখতে পারে । এই ফলের সবচেয়ে ভালো বিষয় হল এটি কোষের ক্ষতি কমায় । এই ফলের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা আপনাকে কর্কট রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।

চোখের জন্য ভাল :

নিয়মিত আনারস সেবনের ফলে ম্যাকুলার ডিজেনারেশনের ঝুঁকি কমে যায় যা আপনার বয়স বাড়ার সাথে সাথে চোখের দৃষ্টিশক্তি কমায়। এই স্বাস্থ্যকর ফলের ভিটামিন সি এবং বেশ কয়েকটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উচ্চ উৎস রয়েছে যা ভাল দৃষ্টিতে সহায়তা করতে পারে।

বাতের ব্যথা কমায়:

আনারসে রয়েছে ব্রোমেলেন যা জয়েন্টের ব্যথা কমাবে এবং আপনাকে বাত থেকে রক্ষা করে ।

উচ্চ রক্তচাপ রোধ করে :

আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন, তাহলে নিয়মিত আনারস খাওয়া শুরু করুন, কারণ এই ফলটিতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম এবং কম পরিমাণ সোডিয়াম রয়েছে যা রক্তচাপ বজায় রাখতে পারে।

রক্ত জমাট বাঁধার ঝুঁকি কমায় :

ব্রোমেলাইন আনারসে প্রধান পদার্থ হওয়ায় আপনার রক্তজমাট বাঁধার ঝুঁকি কমায়।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট :

আনারস পুষ্টি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ যা আপনার শরীরের যেসব রোগের প্রবণতা আছে তা প্রতিরোধ করার ক্ষমতা রাখে।আনারসে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং আপনাকে অনেক রোগ থেকে রক্ষা করে।