Indian Rail: ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হতেই ফিরছে টিকিট বাতিলের পুরনো নিয়ম

536
Indian Rail

নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: করোনাজনিত পরিস্থিতির জেরে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল দূরপাল্লার ট্রেনের (Indian Rail) স্বাভাবিক চলাচল। এতদিন চলছিল কিছু স্পেশাল ট্রেন। সেই ট্রেনের টিকিটের ভাড়া থেকে টিকিট বাতিল, সব নিয়মই ছিল আলাদা। স্পেশাল ট্রেনগুলিতে সর্বোচ্চ ৭ দিন আগে টিকিট কাটা যেত। ট্রেন ছাড়ার কমপক্ষে ২৪ ঘন্টা আগে টিকিট বাতিল করলে মিলত ভাড়ার ৫০ শতাংশ টাকা ফেরত।

কিন্তু করোনাজনিত পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার পর এখন ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হতেই রেল আবার ফিরে যাচ্ছে তাদের পুরোনো নিয়মে। অর্থাৎ করোনা পরিস্থিতির আগে যেসব নিয়ম চালু ছিল সেই সব নিয়মই আবারও চালু হচ্ছে। করোনা সংক্রমণের আগে ট্রেন ছাড়ার ৪ ঘণ্টা আগে পর্যন্ত কনফার্ম টিকিট বাতিল করা যেত। আর কনফার্ম না হওয়ার টিকিট বাতিল করা যেত ট্রেন ছাড়ার ৩০ মিনিট আগে। একইসঙ্গে স্লিপার ক্লাসের টিকিট কনফার্ম না হলে বা আরএসি হয়ে থাকলে ট্রেন ছাড়ার ৩০ মিনিট আগেও তা বাতিল করা যেত। এক্ষেত্রে অবশ্য রেল যাত্রী পিছু ৬০ টাকা করে কেটে নিতে। করোনাজনিত পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার পর রেল চলাচল স্বাভাবিক হতেই ফের সে আগের নিয়ম চালু হচ্ছে।

আগে অসংরক্ষিত টিকিটের ক্ষেত্রে যাত্রীপিছু ৩০ টাকা কাটা হত। তবে সময় পার হয়ে গেলে আর কোন টাকা ফেরত পাওয়া যাবে না। টিকিট বাতিল করে সবচেয়ে বেশি টাকা ফেরত পেতে হলে তা করতে হবে ট্রেন ছাড়ার নির্দিষ্ট সময়ের থেকে ৪৮ ঘণ্টা আগে। এক্ষেত্রে রেলের আগের নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি শ্রেণি অনুযায়ী একটা টাকা কেটে রেখে বেশিরভাগ টাকাটাই যাত্রীদের ফেরত দিত।

সাধারণত বাতানুকূল প্রথম শ্রেণি এবং এক্সিকিউটিভ শ্রেণির ক্ষেত্রে টিকিট বাতিল করলে কেটে নেওয়া হয় ২৪০ টাকা। বাতানুকূল টু-টিয়ার, বাতানুকূল থ্রি-টিয়ার, বাতানুকূল চেয়ার কার এবং বাতানুকূল ইকোনমি শ্রেণির টিকিট কেটে নেওয়া হয় ২০০ টাকা। স্লিপার ক্লাসের ক্ষেত্রে টিকিট বাতিল করলে কেটে নেওয়া হয় ১২০ টাকা। দ্বিতীয় শ্রেণীর ক্ষেত্রে টিকিট বাতিল করলে ৬০ টাকা কেটে নেওয়া হয়ে থাকে। তবে ট্রেন ছাড়ার ৪৮ ঘণ্টা আগে থেকে ১২ ঘণ্টার মধ্যে কনফার্ম টিকিট বাতিল করলে আরও কম টাকা ফেরত পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে সব শ্রেণিতেই রেল টিকিটের মূল্যের ২৫ শতাংশ কেটে নিয়ে থাকে। এর মধ্যে অবশ্য জিএসটি যুক্ত রয়েছে। এরপর রয়েছে ট্রেন ছাড়ার নির্দিষ্ট সময় থেকে ১২ ঘণ্টা আগে থেকে চার ঘণ্টা আগে পর্যন্ত। এক্ষেত্রে টিকিট বাতিল করলে যাত্রীরা ভাড়ার ৫০ শতাংশ ফেরত পান। এবার সেই পুরোনো নিয়মই আবার চালু করছে ভারতীয় রেল।